বিনোদন

রেকর্ডের পথে শাকিবের ‘বীর’

ব্রিট বাংলা ডেস্ক :: ঢালিউড সুপারস্টার শাকিব খানের এসকে ফিল্মসের প্রযোজনায় শুক্রবার সারাদেশের ৮০টি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেয়েছে ‘বীর’ সিনেমাটি। এর আগে তার প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান থেকে ‘পাসওয়ার্ড’ ছবিটি সেরা ব্যবসাসফল ছবির তালিকায় থাকলেও সেই রেকর্ডকে পেছনে ফেলতে যাচ্ছে গুনী নির্মাতা কাজী হায়াৎ পরিচালিত ৫০তম সিনেমা ‘বীর’। ছবিটি মুক্তির আগে থেকেই দর্শকদের ব্যাপক আগ্রহ লক্ষ্য করা যায় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। শুক্রবার মুক্তি পাওয়ার পর দেশের প্রায় সব সিনেমা হলের শোগুলোতে ছিল দর্শকের উপচে পড়া ভিড়। গতকাল রাজধানীর মধুমিতা সিনেমা হলে ‘বীর’ দেখার জন্য দর্শকের ভীড় ছিল চোখে পড়ার মত। শো ছিল হাউজফুল। এদিকে রাজধানীর স্টার সিনেপ্লেক্স, বলাকা, টঙ্গীর চম্পাকলি, সাভারের সেনা অডিটরিয়াম, গাজীপুরের বর্ষা, রংপুরের শাপলা ও যশোরের মনিহার হলে সিনেমাটি দর্শকরা আগ্রহ নিয়ে উপভোগ করছেন।

বলাকা সিনেমা হলের ম্যানেজার এস এম শাহীন বলেন, আমদের সিনেমা হলে শুধু না বাংলাদেশের প্রতিটি সিনেমা হলে খবর নিয়ে জেনেছি যে, ‘বীর’ ছবিটির সেল খুব ভালো।

দর্শকরা অনেকদিন পর ভালো মানের একটি সিনেমা পেয়েছে এবং তা দেখার জন্য সিনেমা হলে আসছে। ‘বীর’ রেকর্ড গড়তে যাচ্ছে। স্টার সিনেপ্লেক্স সূত্রে জানা যায়, সিনেপ্লেক্সে গতকাল ‘বীর’-এর রেজাল্ট খুবই ভালো। চারটি করে শো চলছে এবং সীমান্ত সম্ভারে চলছে দুটি শো। বিকেল ও সন্ধ্যার শো হাউজফুল গেছে তাদের। অনেক দর্শক অগ্রীম টিকেট কাটছে। আজকের শোও ভালো যাবে বলে আশা করছেন তারা। মধুমিতা সিনেমা হলের কর্ণধার ইফতেখার উদ্দিন নওশাদ বলেন, ঈদ ছাড়া শাকিবের ‘বীর’ দিয়ে প্রথম দিনই শো হাউসফুল যাচ্ছে।

বিকেলের শো বেশ ভালো দর্শক হয়েছে এবং সন্ধ্যায় গতকাল হাউজফুল ছিল। এটা চলচ্চিত্র ব্যবসার জন্য অবশ্যই ভালো একটি খবর। এভাবে তিন-চারদিন চলতে থাকলে ছবিটি সুপারহিটের তালিকায় জায়গা করে নিবে। ‘বীর’ ছবিটি সহ-প্রযোজনা করেছেন এমডি ইকবাল। তিনি বলেন, সারা দেশের সিনেমাহলগুলোর সেল রিপোর্ট ভালো পাচ্ছি। সিনেমা হল মালিকরাও শাকিবের ‘বীর’ ছবিটি পেয়ে বেশ খুশি। আশা করছি, ছবিটি রেকর্ডের খাতায় জায়গা করে নিবে এ বছর। শাকিব খান, বুবলী ছাড়াও ছবিতে আরো বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন মিশা সওদাগর, নাদিম, জাদু আজাদ, শিশু শিল্পী সুনান প্রমুখ।

Related Articles

Back to top button