করোনা

করোনায় ব্রিটেনে একদিনে শতাধিক মানুষের মৃত্যু : সেল্ফ এমপ্লয়েডদের বিশেষ অনুদান ঘোষণা

ব্রিটবাংলা ডেস্ক : করোনা ভাইরাসে ইউকেতে এই প্রথম এক দিনে শতাধিক মানুষের মৃত্যু হয়েছে। এনএইচএসের তথ্য অনুযায়ী করোনা ভাইরাসে এক দিনে ইউকেতে ১শ ১৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। সর্বমোট মৃতের সংখ্যা গিয়ে দাঁড়িয়েছে ৫শ ৭৮ জনে। এদিকে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত ইউকেতে করোনা ভাইরাসের জন্যে ১শ ৪ হাজার ৮শ ৬৬ জন মানুষ পরীক্ষা করিয়েছেন। এরমধ্যে ৯৩ হাজার ২শ ৮ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত করা হয়েছে। এক দিনেই আক্রান্ত হয়েছেন সাড়ে ১১ হাজারের বেশি মানুষ। এদিকে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগিদের সেবায় নিয়োজিত এনএইচএস স্টাফদের প্রেরণা যুগাতে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় হাততালি দিয়েছে দেশবাসী।
রাস্তায় বেরোলে জরিমানা ও গ্রেফতার : 
এদিকে করোনা ভাইরাসের সংক্রম রোধে প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত লকডাউন নিয়ম অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে জরিমানা আরোপ এবং গ্রেফতারের ক্ষমতা দেওয়া হয়েছে পুলিশকে। হোম অফিস জানিয়েছে, লকডাউন অমান্য করে কোনো ব্যক্তি সুনির্দিষ্ট কোনো কারণ ছাড়া ঘর থেকে বের হলে তার বিরুদ্ধে প্রাথমিকভাবে ৬০ পাউন্ড জরিমানা আরোপ করবে পুলিশ। তবে প্রথম ১৪ দিনের ভেতরে পরিশোধ করলে তা ৩০ পাউন্ডে নামিয়ে আনা হবে। একই ব্যক্তি দ্বিতীয় দফায় লকডাউন নিয়ম লঙ্ঘন করলে তাকে ১শ ২০ পাউন্ড জরিমানা আরোপ করা হবে। একই ব্যক্তি যতোবার নিয়ম ভাঙ্গবে ততোবার তাকে দ্বিগুন হারে জরিমানা করবে পুলিশ। লকডাউন অমান্যকারীকে প্রয়োজনে গ্রেফতার করতে পারবে পুলিশ। বৃহস্পতিবার থেকে পরবর্তী ছ’মাস এই ক্ষমতা থাকবে পুলিশের হাতে। তবে প্রতি তিন সপ্তাহ পরপর তা পর্যালোচনা করা হবে বলে হোম অফিস জানিয়েছে। জরিমানার অর্থ পরিশোধে ব্যর্থ ব্যক্তিদের কোর্টে নিয়ে যাবার ক্ষমতাও দেওয়া হয়েছে পুলিশকে।
সেল্ফ এমপ্লয়েড
করোনা ভাইরাসে ক্ষতিগ্রস্ত সেলফ এমপ্লয়েডদের জন্য সরকারী অনুদান ঘোষণা করেছেন ব্রিটিশ চ্যান্সেলর ঋষি সুনাক। ইতিপূর্বে চাকরিজীবী ও ব্যবসায়ীদের জন্য বরিস জনসন ৩শ ৩০ মিলিয়ন পাউন্ড অনুদানের ঘোষণা দিলেও উপক্ষিত ছিলেন সেলফ এমপ্লয়েড নাগরিকরা। বৃহস্পতিবার চ্যান্সেলরের এমন ঘোষণায় আশার আলো দেখছেন ব্রিটেনের প্রায় ৫ মিলিয়ন সেলফ ইমপ্লয়েডরা। চ্যান্সেলারের ঘোষণা অনুযায়ী, সেল্ফ এমপ্লয়েডরা তাদের মাসিক গড় আয়ের ৮০ শতাংশ হিসেব করে সর্বোচ্চ আড়াই হাজার পাউন্ড ক্লেইম করতে পারবেন।
পার্লামেন্ট স্থগিত
এদিকে করোনা ভাইরাসের কারণে নির্ধারিত সময়ের এক সপ্তাহ আগেই বৃহস্পতিবার রাত থেকে ব্রিটিশ পার্লামেন্ট অধিবেশন স্থগিত করা হয়েছে। ইস্টার হলিডে উপলক্ষে আগামী ৩১শে মার্চ থেকে তিন সপ্তাহের জন্যে অধিবেশন স্থগিতের কথা ছিল। করোনা সংক্রমনের ভয়ে এক সপ্তাহ আগে বৃহস্পতিবার রাত থেকেই স্থগিত করা হয়েছে। পার্লামেন্ট বন্ধ থাকবে আগামী ২১ এপ্রিল পর্যন্ত।

Related Articles

Back to top button