বিনোদন

অপূর্বর ডিভোর্স প্রসঙ্গে মুখ খুললেন তিশা

ব্রিট বাংলা ডেস্ক :: ছোট পর্দার জনপ্রিয় অভিনেতা জিয়াউল ফারুক অপূর্ব ও নাজিয়া হাসান অদিতির সাজানো সংসার ভেঙে গেছে। ৯ বছরের দাম্পত্য জীবনের সমাপ্তি হলো তাদের। বোববার ডিভোর্সের খবর প্রকাশ্যে আনেন অদিতি।

এদিকে গুজব উঠেছে এই সংসার ভাঙার পেছনে রয়েছেন অভিনেত্রী তানজিন তিশা। সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুকে অপূর্বর ভক্তরা তিশাকেই দায়ি করছেন। কয়েকটি অনলাইনও প্রকাশ করেছে এমন খবর। অপূর্ব-তিশা জুটির প্রচুর নাটক জনপ্রিয়তা পেয়েছে। গুজব ছড়িয়েছে নিয়মিত জুঁটি বেঁধে অভিনয় করতে গিয়ে সত্যিই সম্পর্কে জড়ান তারা।

অপূর্বের স্ত্রী ব্যাপারটি নিয়ে আপত্তি জানান। অপূর্ব তিশার সঙ্গে তার সম্পর্ককে শুধু বন্ধুত্ব বললেও অবিশ্বাস করেন অদিতি। সব মিলিয়ে অভিযোগের তীর এখন তিশার দিকে। এদিকে এমন গুজবে কান না দিতে আহ্বান জানিয়েছেন তিশা। এমনকি গুজব যারা ছড়াবেন তাদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেবেন বলেও হুমকি দিয়েছেন তিনি। সোমবার ভোরে নিজের ফেরিফাইড ফেসবুক পেজে এক পোস্টে তিশা লিখেছেন, আমি সাধারণত গুজবে সাড়া দিই না। তবে আজ আমি অনুভব করছি যে, কয়েকটি অনলাইন সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত চলমান গসিপ বন্ধ করা উচিত। দয়া করে আমার নামটি ব্যাবহার করবেন না। এতে আমারসহ শিল্পী এবং তার পরিবারের চলমান পরিস্থিতি আরো খারাপ হবে। আমি সত্যিকার অর্থে বিশ্বাস করি যে, কেউ আমার খ্যাতি কুখ্যাতে ইচ্ছাকৃতভাবে এটি তৈরি করছে। ভক্ত এবং শুভাকাঙ্ক্ষীদের কাছে অনুরোধ করে তিশা বলেন, দয়া করে এমন খবরে বিশ্বাস করবেন না, যার কোনো সত্যতা নেই। আমি আপনাদের সবাইকে অনুরোধ করছি যেন এই গুজবে আর ভাগ না বসিয়ে এবং ছড়িয়ে না দেন। কারণ, ভুয়া খবর ছড়িয়ে দেয়াও একটি সাইবার অপরাধ।সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে তিশা বলেন, অনুরোধ করছি আপনাকে এই ধরনের ভিত্তিহীন গল্পে আমার নাম উল্লেখ না করার। যারা এই কাজটি চালিয়ে যাবেন তাদের আমার শেষ থেকেই আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।

Related Articles

Back to top button