যুক্তরাজ্য

করোনায় বিপর্যস্ত ব্রিটিশ অর্থনীতি : ভ্রমণকারীদের সেল্ফ আইসোলিউশন বাধ্যতামূলক

ব্রিটবাংলা ডেস্ক : করোনা সংক্রম ঠেকাতে এবার ব্রিটেন ভ্রমনকারীদের উপর সেল্ফ আইসোলিউশন বাধ্যতামূরক করেছে ব্রিটিশ সরকার। আকাশ, স্থল এবং জলপথে যে কোনো ব্যক্তিকে বৃটেনে প্রবেশের সাথে সাথেই ১৪ দিনের সেল্ফ আইসোলিউশনে যেতে হবে। না গেলে গুনতে হবে ১ হাজার পাউন্ড জরিমানা। শুক্রবার টেন ডাউনিং স্ট্রীটের করোনা ব্রিফিংয়ে এই ঘোষণা দেন হোম সেক্রেটারী প্রীতি পাটেল। হোম সেক্রেটারী আরো জানান, বৃটেনে প্রবেশের পর ভ্রমণকারী কোথায় থাকবেন তা যথাযথ কর্তৃপক্ষকে জানাতে হবে। সেই ঠিকানায় যে কোনো সময় গিয়ে পুলিশ হাজির হবে এবং উক্ত ব্যক্তিকে সেল্ফ আইসোলিউশনে না পেলে তাকে ঘটনাস্থলেই ১ হাজার পাউন্ড জরিমানা করা হবে। আগামী ৮ জুন থেকে হোম সেক্রেটারী ঘোষিত নতুন এই নিয়ম কার্যকর হবে।
এদিকে গত চব্বিশ ঘন্টায় বৃটেনে করোনায় আরো ৩শ ৫১ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে সর্বমোট মৃতের সংখ্যা ৩৬ হাজার ৩শ ৯৩ জনে গিয়ে দাঁড়াল।
এদিকে করোনা সংকট মোকাবেলায় গত এপ্রিল মাসে ব্রিটিশ সরকারের ব্যয় এবং রাজস্ব আয়ের মধ্যে বিশাল ঘাটতি দেখা দিয়েছে। এই ঘাটতি কাটিয়ে উঠতে শুধু এপ্রিলেই সরকারকে ৬২ দশমিক ১ বিলিয়ন পাউন্ড ঋণ নিতে হয়েছে। যা ব্রিটিশ অর্থনীতির রেকর্ডে এক মাসের মধ্যে সর্বোচ্চ ঋণের পরিমাণ। দ্যা অফিস ফর ন্যাশনাল স্ট্যাটিসটিকস জানিয়েছে, করোনা সংকটে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে সহযোগিতা বিশেষ করে ফিউরলাফ স্কীমের ফলে এই ঘাটতি তৈরী হয়েছে। চ্যান্সেলার ঋষি সোনাক বলেছেন, সরকারের সহযোগিতা ছাড়া করোনায় দেশের অর্থনৈতিতে আরো বিপর্যয় নেমে আসবে।
গত অর্থ বছরে প্রতিরক্ষা, পুলিশ, এনএইচএস, স্কুল এবং বেনিফিটসহ বিভিন্নখাতে সরকার ৮৮০ বিলিয়ন পাউন্ড ব্যয় করেছে। এরমধ্যে ৮৪০ বিলিয়ন পাউন্ড এসেছে রাজস্বসহ অন্যান্য খাত থেকে। আর চলতি অর্থ বছরে এক মাসের ঘাটতি মেটাতেই সরকারকে ৬২ বিলিয়ন পাউন্ড ঋণ করতে হয়েছে।

Related Articles

Back to top button