আন্তর্জাতিক

সীমান্তে সেনা মোতায়েন;ভারত-চীন উত্তেজনা চরমে

ব্রিট বাংলা ডেস্ক :: লাদাখ সেক্টরের বিতর্কিত সীমান্তের কাছে প্রায় ৫০০০ সেনা মোতায়েন (মার্শাল) করেছে চীন।এদিকে, ভারত তার প্রতিরক্ষা জোরদার করতে সেখানে সামরিক শক্তি বৃদ্ধি করেছে। প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখা (এলএসি) বরাবর চীনের এ সেনা মোতায়েনে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ককে হুমকির মুখে ফেলতে পারে বলে মনে করছে ভারত।প্রতিরক্ষা জোরদার করতে সামরিক শক্তিবৃদ্ধি করেছে ভারত।এ প্রেক্ষিতে লাদাখ সীমান্তে এখন চরম উত্তেজনা চলছে। ক্রমশ উত্তপ্ত হচ্ছে ভারত-চীন সীমান্ত।

দুই দেশের রাজনৈতিক ও সামরিক নেতারা প্রকাশ্যে কোনও বক্তব্য না দিলেও সীমান্তে বৃদ্ধি পাচ্ছে প্রস্তুতি।

লাদাখ সীমান্তে ৫০০০ সৈন্য পাঠিয়েছে চীন। প্রত্যুত্তরে সেনার সংখ্যা বাড়াচ্ছে ভারতও।

‘লাইন অফ অ্যাকচুয়াল কন্ট্রোল’ (এলএসি) এর চার জায়গায় একেবারে সামনা সামনি অবস্থান করছে ভারত এবং চীনের সেনাবাহিনী।বারবার বৈঠক করেও সমাধান মেলেনি।

প্যাঙ্গোঙ্গ লেকের কাছে প্যাট্রল বাহিনীর সংঘর্ষের মধ্যে দিয়ে যে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়েছিল, তা এখন কয়েকগুণ বেড়ে গিয়েছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সামরিক কর্মকর্তা হিন্দুস্তান টাইমসকে জানিয়েছেন, ওই অঞ্চলে ৫০০০ সেনা নিয়ে এসেছে চীন। তবে ফ্ল্যাস পয়েন্টগুলিতে নয়, বিভিন্নস্থানে ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছে এই সেনা সমাবেশ।

ভারতীয় সেনা কর্মকর্তা জানান, চীনকে বেশি পরিশ্রম করতে হয়নি। কাছেই একটা জায়গায় সামরিক ট্রেনিং চলছিল। সেখান থেকেই সেনাবাহিনীকে ওখানে পাঠিয়ে দিয়েছে চীন।

আরেকজন সেনা কর্মকর্তা জানান, চীনের রণনীতির ওপর নজর রেখেছে ভারত। সেনা সদস্যের সংখ্যায় যাতে সামঞ্জস্য থাকে, সেটি নিশ্চিত করা হচ্ছে।

Related Articles

Back to top button