যুক্তরাজ্য

ইউগভের জরিপ : ৭১ শতাংশ মনে করেন ডোমিনিক আইন ভঙ্গ করেছেন-পদত্যাগের দাবী ৫৯ শতাংশের

ব্রিটবাংলা ডেস্ক : ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের প্রধান উপদেষ্টা ডোমিনিক কামিংস লকডাউন আইন ভঙ্গ করেছেন এবং তার পদত্যাগ করা উচিত বলে ইউগভের জরিপে অংশগ্রহনকারী ভোটাররা মত দিয়েছেন।
অনলাইন জরিপ প্রতিষ্ঠান ইউগভের জরিপে অংশগ্রহণকারী ৫৯ শতাংশ ভোটার বিশ্বাস করেন করোনা ভাইরাসের লকডাউন আইন লঙ্ঘনের অভিযোগে ডোমিনিক কামিংসের পদত্যাগ করা উচিত। সোমবার ডোমিনিক কামিংসের প্রেস ব্রিফিং পরে এই জরিপ চালানো হয়। এতে ১ হাজারের বেশি বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ অংশ নেন। জরিপে অংশগ্রহণকারী ৭১ শতাংশই মনে করেন তিনি আইন লঙ্ঘন করেছেন।
প্রেস ব্রিফিংয়ের আগে পরিচালিত অন্য একটি জরিপেও ৫২ শতাংশ ভোটার বলেছিলেন, ডোমিনিক কামিংসের পদত্যাগ করা উচিত।
উল্লেখ্য মার্চে কঠোর লকডাউন আইন ঘোষণার পর করোনা আক্রান্ত স্ত্রী এবং চার বছরের বাচ্চাকে নিয়ে প্রায় ২৬০ মাইল গাড়ি চালিয়ে লন্ডন থেকে ডারহামে বাবা-মার ঘরে গিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রীর বিতর্কিত উপদেষ্টা ডোমিনিক কামিংস। এছাড়া ডারহাম আরো ৩১ মাইল দূরে অন্য একটি জায়গায় তিনি গিয়েছিলেন চক্ষু পরীক্ষার জন্য।
এই ঘটনা সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশের পর থেকে লকডাউন আইন লঙ্ঘনের অভিযোগে প্রধানমন্ত্রীর প্রধান উপদেষ্টার পদ থেকে ডোমিনিক কামিংসকে পদত্যাগের আহ্বান জানিয়ে আসছে লেবারপার্টিসহ অন্যান্য রাজনৈতিক দলগুলো। কনজারভেটিভ পার্টির অন্তত ২০ জন এমপিও তাকে পদত্যাগের আহবান জানিয়েছেন। ডোমিনিক কামিংসের পদত্যাগের দাবীর প্রতি একাত্মতা জানিয়ে এরিমধ্যে স্কটল্যান্ড মিনিষ্টার পদত্যাগ করেছেন।
তবে ডোমিকিন কামিংসকে সমর্থন করে আসছেন প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনসহ কেবিনেটের সদস্যরা। প্রধানমন্ত্রী বলে আসছেন, ডোমিনিকি কামিংস যথাযথ কারণে আইনসঙ্গত কাজ করেছেন। এমনকি সোমবার নিজে প্রেসব্রিফিং করে নিজের লকডাউন আইন লঙ্ঘন করেননি বলেও দাবী করেছেন ডোমিনিক কামিংস।

Related Articles

Back to top button