যুক্তরাজ্য

২৫০ বিলিয়ন পাউন্ডের প্রজেক্টের মাস্টার প্লান প্রধানমন্ত্রী বরিসের

মো: রেজাউল করিম মৃধা ॥ দেশের অবকাঠামোগত উন্নয়নের লক্ষ্যে এ যাবত কালের সর্ব বৃহৎ প্রজেক্টের মাস্টার প্লান ঘোষণা করেছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। এই প্রজেক্টের আওতায় শহর থেকে গ্রাম সব খানেই পরবে উন্নয়নের ছোঁয়া। ২৫০ বিলিয়ন পাউন্ড বাজেটের বৃহৎ প্রজেক্টের কাজের সব প্রস্তুতি চলছে। প্রধানমন্ত্রী গত বৃহস্পতিবার এই বৃহৎ প্রজেক্টের পরিকল্পনা ঘোষণা করে বলেন, “করোনাভাইরস মহামারির লক ডাউনে কিছুটা বিরতীর পর মাস্টার প্লানের কাজ আবার দ্রুত গতিতিতে শুরু হবে। কনো অবস্থাতেই কাজ থেমে থাকবে না”।

মাস্টার প্লানে স্বাস্থ্য খাতকে বেশী প্রাধান্য দেওয়া হয়েছে। ৪০টি নতুন হাসপাতাল নির্মান করা হবে। ১০ হাজার লোকের জন্য জেল খানা নির্মানও থাকছে এই মাস্টার প্লানে। এছাড়া থাকবে স্কুল সংস্কার বাসাবাড়ী নির্মান সহ অন্যান্য প্রজেক্ট ।

১৯৮০ সালের ৩ দশমিক ৩ মিলিয়ন পাউন্ডের মাস্টার প্লান যা ১৯৮৪ সালে তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী মারগারেট থ্যাচার আমলে বাস্তবায়িত হয়েছিল। এর আগে ছিল স্যার জন মেজরের আমলের মাস্টার প্লান। স্যার জন মেজর তার মাস্টার প্লান বাস্তবায়ন করেছেন জনগনের ট্যাক্স পেয়ার মানি দিয়ে। এছাড়া আর কোন সরকারের আমলে এত বড় বাজেট নিয়ে বৃটেনে মাস্টার প্লান হয়নি।

মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়নে ব্রিটেনের শহর ও গ্রামে বরিস জনসন একটি টাস্ক ফোর্স গঠন করবেন। ২০২৪ সালে ব্রিটেনে আগামী নির্বাচনের আগেই এই পরিকল্পনার অধিকাংশ প্রকল্প শেষ করার তাগিদ দিয়েছেন বরিস।
অন্তত ৪০টি নতুন হাসপাতাল, এইচএসটু ধরনের দীর্ঘ রেলপথ, স্কুল আধুনিকিকরণ, চারটি নতুন কারাগার ও শতশত সড়ক নির্মাণ এ মহাপরিকল্পনার অন্তর্গত।
বৃটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন সতর্ক করে বলেছেন এধরনের মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়নে ধীর গতির জন্যে কোনো অজুহাত সহ্য করা হবে না বরং দ্রুত এসব প্রকল্প শেষ করতে বাড়তি অর্থ বরাদ্দ দেয়া হবে।

Related Articles

Back to top button