সিলেট

চলতি বছর প্রায় আড়াই হাজার পরিবারকে সহযোগিতা দিয়েছে গোলাপগঞ্জ হেল্পিং হ্যান্ডস ইউকে

আর্তমানবতার সেবার লক্ষ্যে গঠিত গোলাপগঞ্জ হেল্পিং হ্যান্ডস ইউকে প্রবাসী দানশীলদের সহযোগিতা নিয়ে অনবরত দেশের দরিদ্র মানুষের জন্যে সেবা করে যাচ্ছে। এরি ধারাবাহিকতায় গত ২৪ জুলাই, শুক্রবার দুপুরে হেতিমগন্জের সিক্স ষ্টার কমিউনিটি সেন্টার চ্যানেল এসের ফিড ফাইভ থাউজেন্ড এবং গোলাপগঞ্জ হেল্পিং হ্যান্ডস ইউকের যৌথ অর্থায়নে ২৫০ পরিবারের মধ্যে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে।

সিলেট প্রেস ক্লাবের সভাপতি, বিশিষ্ট সাংবাদিক গোলাপগঞ্জের গৌরব ইকবাল আহমদ সিদ্দিকী প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে খাদ্য সামগ্রী হস্তান্তর করেছেন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্টার বদরুল আহমেদ সুয়েব ও বারাকা পাওয়ার প্লান্টের পরিচালক একলিম চৌধুরী, চ্যানেল এস সিলেটের চিফ রিপোর্টার মঈন উদ্দিন মজ্ঞু সমাজসেবী নজরুল ইসলাম, বিশিষ্ট সমাজসেবী জসিম উদ্দিন কয়ছর, ডা: এনামুল হক লুতু, নজরুল ইসলাম, মহসিন আহমদ, খয়রুল আলম ও আব্দুস সামাদ জোয়ারদার প্রমুখ l

এদিন দ্বিতীয় দফায় ২৫০ টি পরিবারকে খাদ্য সামগ্রী বিতরন করা হয় l তাছাড়া যে সকল মধ্যবিত্তরা কষ্টে আছেন কিন্তূ বলতে পারছেন না আবার লাইনেও দাঁড়াতে পারছেন না তাদের পরিচয় গোপন রেখে ৭টি পরিবারকে এক মাসের খাদ্য সামগ্রী বাড়িতে পৌছে দেয়া হয়েছে।
দেশে কর্মসুচীর সার্বিক ব্যবস্থাপনায় ছিলেন বিশিষ্ট সমাজসেবী সুজন খান ও সমাজসেবী রাহুল হোসেন সায়েল।

চ্যানেল এসের প্রতিষ্ঠাতা মাহি ফেরদৌস জলিল, চিফ রিপোর্টার মোহাম্মদ জুবায়েরসহ সকলকে গোলাপগঞ্জ হেল্পিং হ্যান্ডস ইউকের সভাপতি বেলাল হোসেন, সাধারণ সম্পাদক শাব্বির আহমেদ সাহেদ , ট্রেজারার আব্দুস সামাদকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানানো হয়।


ত্রান বিতরন প্রোগ্রামটি যুক্তরাজ্য থেকে সমন্বয় করেছেন প্রতিষ্টাতা সাধারণ সম্পাদক মোঃ তাজুল ইসলাম, সাবেক সভাপতি ফেরদৌস আলম, নির্বাহী সদস্য জহুরুল ইলাম সামুন, আলী হোসেন প্রমুখ।
অতিথির বক্তব্যে ইকবাল সিদ্দিকী চ্যানেল এস ও গোলাপগঞ্জ হেল্পিং হ্যান্ডস ইউকে ভুয়সী প্রসংশা করে বলেন, এই মহামারি সময় যেভাবে এগিয়ে এসেছে তা নিশ্চয়ই একটি ভাল কাজ আর তাঁরা সব সময়ই এই কাজে এগিয়ে এসেছেন যা গোলাপগঞ্জ এর মানুষ সব সময় স্মরণ রাখবে।

উল্লেখ্য গত জুন মাসে কভিড-১৯ উপলক্ষে ইতিমধ্যে ১১টি ইউনিয়ন ও ১টি পৌরসভায় ১৪০০ শত পরিবারের মধ্যে খাদ্য সামগ্রী বিতরন করা হয়েছে। এছাড়া গত জানুয়ারিতে ৮৫০ জন মানুষের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করে। প্রতি বছর এই সংগঠন থেকে রামাদানে গরিবদের মধ্যে ইফতার প্যাকেজ বিতরণ করা হয়l সংগঠনটির প্রধান কাজ হচ্ছে অসহায় মানুষের জন্য স্থায়ী বাসস্থানের জন্য পাঁকা ঘর তৈরী করা।
ইতিমধ্যে ১২ টি নির্মাণ করে দেওয়া হয়েছে এবং তা অব্যাহত রয়েছে। এবছর সর্বোমোট ২৫০০ পরিবারের পাশে দাঁড়াল গোলাপগঞ্জ হেল্পিং হ্যান্ডস ইউকে।

Related Articles

Back to top button