কমিউনিটি

করোনায় কমিউনিটি সেবার জন্যে সাফরন রেষ্টুরেন্টের প্রশংসা করলেন নর্থাম্পটনের মেয়র

এহসানুল ইসলাম চৌধুরী শামীম ॥ করোনা ভাইরাসের এই সময়ে ভোজন বিলাসীদের প্রিয় রেস্টুরেন্ট নর্থাম্পটনের সাফরন বেশ কয়েক বার নর্থাম্পটন জেনারেল হাসপাতালের এন এইচ এসের স্টাফ ও বয়স্কদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে বিনা মুল্যে খাবার বিতরন করে অনন্য ভুমিকা রেখেছে। তাদের মহতি কাজ দেখে নর্থাম্পটনের মেয়র কাউন্সিলর ব্রায়ান সার্জেন্ট ও তার সহধর্মীনি রায় কেলী সার্জেন্ট সাফরন রেষ্টুরেন্ট পরিদর্শন করে রেষ্টুরেন্টের মালিক নাজ ইসলাম, শেফ বদরুল ইসলাম ও স্টাফদেরকে অভিনন্দন জানান।এছাড়া এমপি এন্ড্রু লেওয়ার এমবিই অভিনন্দন জানিয়েছেন।
ব্রিটেনের বিভিন্ন হাসপাতালের এন এইচ এসের ডাক্তার, নার্সসহ অন্যান্যরা নিজেদের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে দেশের কল্যানে মানুষের কল্যানে অক্ল্যান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন।লকডাউন চলাকালে নর্থাম্পটন জেনারেল হাসপাতালের এন এইচ এসের স্টাফ ও বয়স্কদের বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে বিনামুল্যে বেশ কয়েকবার খাবার বিতরন করে সকলের কাছে প্রশংসীত হয়েছে ভুজন বিলাসীদের প্রিয় রেস্টুরেন্টে সাফরন।ইমারজেন্সি সার্ভিস ও সম্মুখ যোদ্ধাদের জন্য রয়েছে পঁচিশ ভাগ ছাড়। এ কথা জানান, সাফরন রেষ্টুরেন্টের মালিক নাজ ইসলাম। তিনি বলেন, আমরার রেষ্টুরেন্টে মেয়র ব্রায়ান আসায় আমরা খুব খুশী।


করোনা ভাইরাসের এই সময়ে সাফরন রেষ্টুরেন্টের কাজ দেখে ভুয়সী প্রশংসা করে অভিনন্দ জানিয়েছেন এন্ডু লেওয়ার এমপি। এছাড়া নর্থাম্পটনের মেয়র কাউন্সিলর ব্রায়ান সার্জেন্ট ও তার সহধর্মীনি রায় কেলী বুধবার সাফরন রেষ্টুরেন্ট পরিদর্শন করে তাদের অনন্য অবদানের জন্য অভিনন্দন জানান।
এ সময় নর্থাম্পটনের মেয়র কাউন্সিলর ব্রায়ান সার্জেন্ট ও তার সহধর্মীনি রায় কেলীকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান রেষ্টুরেন্টের মালিক নাজ ইসলাম, ডাজ ইসলাম, ইমরান চৌধুরী, শেফ বদরুল ইসলাম সহ আরো অনেকেই।

Related Articles

Back to top button