যুক্তরাজ্য

লন্ডন-সিলেট সরাসরি ফ্লাইট বন্ধের সিদ্ধান্ত বাতিল করতে লন্ডনে বিভিন্ন সংগঠনের দাবী

ব্রিটবাংলা ডেস্ক : লন্ডন-সিলেট সরাসরি ফ্লাইট বন্ধের সিদ্ধান্ত থেকে ফিরে না আসলে আনুষ্ঠানিকভাবে বিমান বয়কটের আন্দোলনের ঘোষণা দিয়েছে ব্রিটিশ বাংলাদেশীদের একাধিক সংগঠন। অন্যদিকে ট্রাভেল ব্যবসায়ীরা অভিযোগ করেছেন, যারা বিমানের সিদ্ধান্তে বিরুদ্ধে কথা বলছেন, তাদেরকে হয়রানী করা হচ্ছে। তবে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স বলছে, তারা সরকারের সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন করেছে মাত্র।

লন্ডন থেকে সিলেটেগামী যাত্রীদের এখন থেকে ঢাকায় ইমিগ্রেশন শেষ করে লাগেজ ক্লেইম করে ডমিস্টিক এয়ারলাইন্সে করে সিলেটের ফ্লাইট ধরতে হবে। সিভিল এভিয়েশন কর্তৃপক্ষের এমন সিদ্ধান্ত পরিবর্তন না করলে বিমান বয়কটের আন্দোলনে যাবেন প্রবাসীরা এমনটাই জানালেন, গ্রেটার সিলেট ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশনের চেয়ার ব্যারিস্টার আতাউর রহমান।

এর আগেও বিভিন্ন সময় ঘন কুয়াশাসহ বিভিন্ন অজুহাত দেখিয়ে সিলেটের যাত্রীদের হয়রানী করা হয়েছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

এদিকে, বিমান বাংলাদেশের এই সিদ্ধান্ত পূর্ণবিবেচনার জন্য প্রধানমন্ত্রীর কাছে স্মারকলিপি দিয়েছে বাংলাদেশ ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশন, আমরা সিলেটবাসী ও যুক্তরাজ্যের ট্রাভেল ব্যবসায়ীদের সংগঠন ইউকে বাটা সহ বেশ কিছু সংগঠন।

ওয়েলফেয়ারের নেতা এবং বালাগঞ্জ-বিশ্বনাথের সাবেক এমপি শফিকুর রহমান চৌধুরী বলেন, প্রধানমন্ত্রী সর্বদা প্রবাসীদের প্রতি আন্তরিক। প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপে বর্তমান সংকটের সমাধান হবে বলে আশাবাদি তিনি।

সিলেট ডিভিশনাল এলায়েন্স ইউকের মূখপাত্র রাজন উদ্দিন জালাল বলেন, যদি শুধুমাত্র কোরানটাইনের অজুহাতে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়, তাহলে এটা মেনে নেওয়া যাবে না। কোরানটাইনের জন্য সিলেট এবং চট্টগ্রামে আরো সুন্দর ব্যবস্থা করার মত প্রচুর সুযোগ- সুবিধা রয়েছে। দুর্নীতিবাজ আমলাদের সূদুর প্রসারী পরিকল্পনার অংশ এই সিদ্ধান্ত বলে মনে করেন তিনি।

এদিকে যে সকল ট্রাভেল ব্যবসায়ীরা সরাসরি সিলেটের ফ্লাইট বন্ধের সিদ্ধান্তের রিরুদ্ধে কথা বলছেন, তাদেরকে ব্যবসায়িকভাবে হয়রানীর অভিযোগ তুলেছেন সংশ্লিষ্টরা।

যদিও বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, লন্ডন থেকে সিলেটগামী যাত্রীদের ঢাকায় ইমিগ্রেশন সম্পন্নের বিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণের এক্তিয়ার বিমানের নেই। বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স সরকারের সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন করেছে মাত্র।

ভয়েস ফর গ্লোবাল বাংলাদেশীজের সভা :

বাংলাদেশ বিমানের লণ্ডন টু সিলেট ফ্লাইট বাতিলের প্রতিবাদে গত ২৮ জুলাই মঙ্গলবার রাতে ভয়েস ফর গ্লোবাল বাংলাদেশীজের এক জরুরী প্রতিবাদ সভা ভারচুয়েল মিডিয়ার মাধ্যমে অনুষ্ঠিত হয় ।বিশিষ্ট কমিউনিটি নেতা ও শিক্ষাবিদ ড: হাসনাত এম হোসেইন এমবিইর সভাপতিত্বে এবং সাবেক কাউন্সিলার ও ডেপুটি মেয়র আ ম ওহিদ আহমদের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত এ সভায় বক্তব্য রাখেন -কমিউনিটি নেতা ড: ওয়ালী তছর উদ্দিন এমবিই, ব্যারিষ্টার কাউন্সিলার নাজির আহমদ, কমিউনিটি নেতা মাহিদুর রহমান ,নিউক্যাসল বাংলাদেশ এসোসিয়েশনের সভাপতি মাহতাব মিয়া, কমিউনিটি নেতা সৈয়দ নাদির আজিজ দরাজ , অধ্যাপক মাওলানা আব্দুল কাদের সালেহ, কমিউনিটি নেতা এম এ লতিফ জেপি, সাংবাদিক কে এম আবুতাহের চৌধুরী , ড: এম এ আজিজ , আলহাজ্ব নুর বকশ প্রমুখ ।
সভায় বক্তারা বলেন, যুক্তরাজ্য প্রবাসী বাংলাদেশীরা যেখানে বিমানের সিলেট – লণ্ডন ফ্লাইট চালুর জন্য অপেক্ষার প্রহর গুনছিলেন তখন হঠাৎ লণ্ডন – সিলেট ফ্লাইট বাতিল করা একটি অযৌক্তিক, অন্যায় ও অগ্রহণযোগ্য সিদ্ধান্ত।
তিন বছর আগে কুয়াশার অজুহাতে সিলেট – লণ্ডন ফ্লাইট বাতিল করা হয়েছিল যা আজ পর্যন্ত চালু করা হয়নি । যুক্তরাজ্যে বসবাসরত সিলেটীরা ঢাকায় কাষ্টমস ও ইমিগ্রেশন করতে গিয়ে এবং মালামাল টেনে ডমেষ্টিক ফ্লাইটে আরোহন করতে সীমাহীন হয়রানীর শিকার হবেন ।বাংলাদেশ সরকারের চারজন মন্ত্রী সিলেটের থাকা সত্বেও লণ্ডন – সিলেট ফ্লাইট বাতিল করায় বিস্ময় প্রকাশ করেন এবং এ ফ্লাইট যথাশীঘ্র আবার চালু করার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানান।
বক্তারা – বিমানের অত্যধিক ভাড়া বৃদ্ধির সমালোচনা করে তা হ্রাসের দাবী জানান ।তারা – বিমানের এ অযৌক্তিক সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে তীব্র আন্দোলন গড়ে তোলার আহ্বান জানান।

Related Articles

Back to top button