যুক্তরাজ্য

পর্যটকদের জন্য খুলে দেওয়া হলো এ্যাডিনবরা ক্যাসেল

মো: রেজাউল করিম মৃধা ॥ করোনাভাইরাস মহামারির কারনে স্কটল্যান্ডের টুরিস্টদের জন্য বন্ধ ছিল এ্যাডিনবরা ক্যাসেল। বর্তমানে করোনাভাইরীসে আক্রান্ত এবং মৃত্যুর কমে আসায় টুরিস্টদের জন্য আবারো উন্মুক্ত করে দেওয়া হলো স্কটল্যান্ডের টুরিস্টদের জন্য সবচেয়ে বড় আকর্ষনীয় স্থান এ্যাডিনবরা ক্যাসেল।

অ্যাডিনবরা ক্যাসেলের সিইও- নিক ফিনিগ্যান বলেন, “করোনাভাইরাস মহামারির সময় বন্ধ থাকা ক্যাসেলকে আবার সব কিছু ঠিক ঠাক করে পূনরায় চালু করা অনেক কস্ট সাধ্য। তিনি মনে করেন, এ্যাডিনবরা আবার স্বচ্ছল হবে। শুরু হবে ব্যাবসা বানিজ্য , জনসাধারন আবার শহর ঘুরে ঘুরে দেখবে। প্রানবন্ত হয়ে উঠবে প্রানের শহর এ্যাডিনবরা।

দ্বিতীয় বিশ্ব যুদ্ধের সময় এই ক্যাসেল বন্ধ ছিলো। ২০২০ সালের মার্চ মাস থেকে জুলাই মাস পর্যন্ত বন্ধ থাকার পর আগস্টের প্রথম দিন থেকে পর্যটকদের জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়া হলো। তবে অতি শতর্কতার সাথেই কার্যকর্ম পরিচালনা করবে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা।

সামাজিক দূরুত্ব বজায় রেখে মাত্র ১ হাজার পর্যটক এ্যাডিনবরা ক্যাসেল পরিদর্শনের সুযোগ পাবেন। অন লাইনের মাধ্যমে টিকিট সংগ্রহ করে আসতে হবে। পূর্বে এখানে প্রতিদিন ১০ হাজার থেকে ১১ হাজার পর্যটক পরিদর্শনের সুযোগ পেতেন এবং প্রতি বছর শুধু জুলাই মাসে ৩০০,০০০ পর্যটক এ্যাডিনবরা পরিদর্শনের জন্য বেড়াতে আসতেন।

এ্যাডিনবরা ক্যাসেলের, দি গ্রান্ড হল, লাইচ হল, সেন্ট মার্গারেটস চ্যাপেল, স্কটিশ ন্যাশনাল ওয়ার মেমোরিয়াল খোলা থাকবে। তবে ক্রাউন জেএলেস বন্ধ থাকবে। কেননা এখানে প্রপার ভেন্টিলেটরের ব্যাবস্থা নেই। এছাড়া স্কটল্যান্ডের বাৎসরিক এ্যাডিনবরা ফ্যাস্টিভ্যাল বন্ধ থাকবে। বন্ধ থাকবে স্কটল্যান্ডের ল্যান্ডমার্ক ঐতিহাসিক ফায়ার ওয়ার্কস বা আতশবাজীর মহা উৎসব।

Related Articles

Back to top button