খাশোগির বিষয়ে সৌদি যুবরাজের ব্যাখ্যা চেয়েছে আমেরিকা

ব্রিট বাংলা ডেস্ক :: সৌদি আরবের ভিন্নমতাবলম্বী নিখোঁজ সাংবাদিক জামাল খাশোগির গুম হওয়ার বিষয়ে সৌদি যুবরাজ মোহাম্মাদ বিন সালমানের ব্যাখ্যা চেয়েছেন আমেরিকার জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জন বোল্টন ও প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের জামাতা জ্যারেড কুশনার।

টেলিফোনের মাধ্যমে তাদের মধ্যে এই কথোপকথন হয়। পরে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও সৌদি রাজা সালমানের সঙ্গে বিষয়টি নিয়ে টেলিফোনে কথা বলেন।

হোয়াইট হাউসের মুখপাত্র সারা স্যান্ডার্স জানান, দুটি সংলাপেই খাশোগির গুম হয়ে যাওয়ার ব্যাপারে বিস্তারিত ব্যাখ্যা চাওয়া হয়েছে এবং সৌদি সরকারকে এ ঘটনার তদন্তে স্বচ্ছতা নিশ্চিত করতে বলা হয়েছে। এ ছাড়া এ বিষয়টি নিয়ে আমেরিকা নিবিড় দৃষ্টি রেখেছে।

সৌদি রাজতন্ত্রের ঘোর বিরোধিতাকারী খাশোগি ২০১৭ সাল থেকে আমেরিকায় স্বেচ্ছানির্বাসিত জীবন কাটাচ্ছিলেন। সরকারবিরোধীদের বিরুদ্ধে সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান ব্যাপক ধরপাকড় অভিযান শুরু করার পর তিনি যুক্তরাষ্ট্রে চলে যান।

গত মঙ্গলবার বিয়ে করার জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র আনতে তিনি ইস্তানবুরের সৌদি কনস্যুলেটে প্রবেশ করেন। এ সময় তার হবুবধূ কয়েক ঘণ্টা কনস্যুলেটের বাইরে অপেক্ষা করেন। কিন্তু খাশোগি সেখান থেকে বের না হওয়ার পর ওই নারী তুরস্কের পুলিশের কাছে অভিযোগ করেন।

ওই অভিযোগের কয়েক ঘণ্টা পর সৌদি কর্মকর্তারা দাবি করেছেন, খাশোগি সৌদি কনস্যুলেট থেকে চলে গেছেন। আঙ্কারা বলছে, সৌদি আরবের এ দাবির পক্ষে তারা কোনো প্রমাণ দেখাতে পারেনি।

Leave a Reply

Developed by: TechLoge

x