১ ওভারে ৪৩ রান, রেকর্ডে আর থাকল না বাংলাদেশ

ব্রিট বাংলা ডেস্ক :: নিউজিল্যান্ডের ফোর্ড ট্রফির এক ম্যাচে এক ওভারে ৪৩ রান উঠেছে। লিস্ট-এ ক্রিকেটে এটি এক ওভারে সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড। আগের রেকর্ডটি ছিল ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে শেখ জামাল-আবাহনী ম্যাচে। আবাহনীর বোলার আলাউদ্দিন বাবুর এক ওভারে ৩৯ রান নিয়েছিলেন এলটন চিগুম্বুরা
আলাউদ্দিন বাবু এবার একটু শান্তি পাবেন। পাঁচ বছর আগে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে তাঁকে দুঃস্বপ্ন দেখিয়েছিলেন এলটন চিগুম্বুরা। আবাহনীর হয়ে সেই ম্যাচের শেষ ওভারটা করেছিলেন আলাউদ্দিন বাবু। শেখ জামালের হয়ে খেলা চিগুম্বুরা তাঁর সেই ওভারে নিয়েছেন ৩৯! লিস্ট-এ ক্রিকেটে এত দিন এটাই ছিল এক ওভারে সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড। কিন্তু এখন আর নয়। আলাউদ্দিন বাবুকে এই যন্ত্রণা থেকে মুক্তি দিয়েছেন নিউজিল্যান্ড ঘরোয়া ক্রিকেটের দল সেন্ট্রাল ডিস্ট্রিক্টসের উইলিয়াম লুডিক।

হ্যামিল্টনে আজ নিউজিল্যান্ডের ঘরোয়া ওয়ানডে টুর্নামেন্ট ফোর্ড ট্রফিতে সেন্ট্রাল ডিস্ট্রিক্টসের মুখোমুখি হয়েছিল নর্দান ডিস্ট্রিক্টস। এই ম্যাচে নিজের দশম ওভার করার আগে লুডিকের বোলিং ফিগার ছিল ১ উইকেটে ৪২। শেষ ওভারটি করার পর লুডিকের বোলিং ফিগার ১ উইকেটে ৮৫! বোঝাই যাচ্ছে বেধড়ক মার খেয়েছেন দক্ষিণ আফ্রিকান বংশোদ্ভূত এই পেসার। সেটি নর্দান ডিস্ট্রিক্টসের দুই ব্যাটসম্যান জো কার্টার আর ব্রেট হ্যাম্পটনের কাছে। দুজন মিলে ছয় ছক্কা হয়ে হাঁকিয়েছেন এক ওভারে। এর মধ্যে দুটি ছিল ‘নো বল’—এই দুই বলেই ছক্কা। দুটি অবৈধ ডেলিভারি সহ ওই ওভারে মোট ৮টি ডেলিভারি থেকে রানসংখ্যা এমন—৪, ৬‍+নো বল, ৬‍+নো বল, ৬, ১, ৬, ৬ ,৬। অর্থাৎ এক ওভারে ৪৩ রান। লিস্ট-এ ক্রিকেটে এটি এক ওভারে সর্বোচ্চ রানের বিশ্ব রেকর্ড।

কার্টারের ১০২* আর হ্যাম্পটনের ৯৫ রানে ভর করে ৭ উইকেটে ৩১৩ রান তুলেছিল নর্দান ডিস্ট্রিক্টস। তাড়া করতে নেমে ২৫ রানে হেরেছে সেন্ট্রাল। অর্থাৎ লুডিকের করা ওই ওভারে ৪৩ রানই দেওয়াই কাল হয়ে দাঁড়িয়েছে সেন্ট্রালের জন্য। আলাউদ্দিন বাবুর ক্ষেত্রেও ঠিক তাই ঘটেছিল। শেষ ওভারে চিগুম্বুরার বিধ্বংসী ব্যাটিংয়ে ২৮২ রান তুলেছিল শেখ জামাল। তাড়া করতে নেমে আবাহনী ২৮ রানের ব্যবধানে হেরেছিল। অর্থাৎ শেষ ওভারে বাবু ৩৯ রান দেওয়ায় ম্যাচটা হারতে হয়েছিল আবাহনীকে।

তবে আলাউদ্দিন বাবু এখন যন্ত্রণাটা ভুলতে পারবেন। লুডিক যে তাঁর জায়গায়! এক ওভারে সর্বোচ্চ রান দেওয়া বোলার। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে এক ওভারে ছয় ছক্কা মানে ৩৬ রান নেওয়ার নজির দেখা গেছে দুবার—১৯৬৮ সালে স্যার গারফিল্ড সোবার্স প্রথম এই নজির গড়েছিলেন নটিংহামশায়ারের হয়ে। ১৭ বছর পর মুম্বাইয়ের (তখন নাম ছিল বোম্বে) হয়ে একই নজির গড়েন রবি শাস্ত্রী।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ত সংস্করণে ছয় ছক্কা মানে সর্বোচ্চ ৩৬ রান নেওয়ার নজির রয়েছে—ওয়ানডেতে ২০০৭ বিশ্বকাপে নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে এক ওভারে ছয় ছক্কা মেরেছিলেন হার্শেল গিবস। একই বছর ডারবানে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ইংলিশ পেসার স্টুয়ার্ট ব্রডের এক ওভারে ছয় ছক্কা মেরেছিলেন ভারতের যুবরাজ সিং। তবে টেস্ট ক্রিকেটে ছয় ছক্কার কোনো নজির নেই। টেস্টে এক ওভারে সর্বোচ্চ ২৮ রান নিয়েছেন ব্রায়ান লারা ও জর্জ বেইলি।

অস্ট্রেলিয়ার সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, সব ধরনের সংস্করণ মিলিয়ে শীর্ষ পর্যায়ের ক্রিকেটে এক ওভারে সর্বোচ্চ রান দেওয়ার রেকর্ডটি নিউজিল্যান্ডেরই সাবেক ক্রিকেটার বার্ট ভিন্সের। এক ওভারে তিনি দিয়েছিলেন ৭৭ রান! বিশ্বাস হচ্ছে না? ম্যাচ জিততে অধিনায়কের কথা শুনে সেদিন ইচ্ছা করেই ১৭টি ‘ফুল টস’ দিয়েছিলেন ভিন্স। প্রতিটি বলই ছিল ‘নো বল’। সিঙ্গেলসের সঙ্গে আর ছিল সাত ছক্কা ও ছয় চারের মার।

এক ওভারে ৪৩ রান নেওয়ার ভিডিও লিংক:

Leave a Reply

Developed by: TechLoge

x