ইস্ট লন্ডনে ৮ মাসের গর্ভবতী মুসলিম মহিলা খুন

মাকে রক্ষা করতে না পারলেও গর্ভের আট মাসের বাচ্ছাকে রক্ষা করেছেন ডাক্তাররা

ব্রিটবাংলা ডেস্ক : ইস্ট লন্ডনের ইলফোর্ডে আট মাসের গর্ভবতী এক মাকে ধনুক দিয়ে হত্যা করেছে এক পাষন্ড। সোমবার সকাল আনুমানিক সাড়ে সাতটার দিকে ঘরে প্রবেশ করে ৫ সন্তানের জননী সানা মোহাম্মদকে তার সন্তানদের সামনেই হত্যা করে ঘাতক। ৩৫ বছর বয়সী সানার পেটে আট মাসের বাচ্চা ছিল। ঘটনার সাথে সাথে স্বামী ইমতিয়াজ মোহাম্মদ পুলিশ ডাকেন। হাসপাতালে ডাক্তাররা জরুরী ভিত্তিতে অপারেশন করে পেটের বাচ্চাকে বাঁচাতে পারলেও মাকে বাঁচাতে পারেননি। সকাল ১১টার দিকে মৃত্যুবরণ করেন সানা। ডাক্তাররা জানিয়েছেন শিশুটির প্রায় এক ইঞ্চি দূরে তীরের আঘাত লেগেছে।

রান্নাঘরে বাচ্চাদের সামনেই সানার পেটে তীর বিদ্ধ করে ঘাতক

পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে সানার ঘাতককে গ্রেফতার করেছে। ৫০ বছর বয়সী ঘাতককে মঙ্গলবার বার্কিংসাইড ম্যাজিস্ট্রেইট কোর্টে হাজির করে সানা মোহাম্মদ হত্যার দায়ে অভিযুক্ত করে। বৃহস্পতিবার তাকে ওল্ডবেইলি কোর্টে হাজির করার কথা রয়েছে। এই হত্যার দায়ে আর কাউকে খোঁজছে না পুলিশ।

ঘটনাস্থল থেকেই ঘাতককে আটক করে পুলিশ

এদিকে বিভিন্ন সুত্রে জানা গেছে, ঘাতক রামানজ উমাতাল্লাগাডো সানা মোহাম্মাদের আগের স্বামী। তাদের ১৭, ১৫, ১২ বছর বয়সী তিন সন্তান রয়েছে। আগে সানার নাম ছিল ডেভি উমাতাল্লাগাডো। তার সঙ্গে বিচ্ছেদের পর সাত বছর আগে পাকিস্তানি অরিজিন ইমতিয়াজ মোহাম্মদের সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন তিনি। ইমতিয়াজের সঙ্গে আট মাসের সন্তান সম্ভাবা ছাড়াও তাদের এক এবং চার বছর বয়সী দুই সন্তান রয়েছে। সানা মোহাম্মদ মৌরিতাস অরিজিন।

সানার স্বামী ইমতিয়াজ মোহাম্মদ

স্ত্রীকে হারিয়ে পাগল প্রায় স্বামী ইমতিয়াজ মোহাম্মদ। তাদের প্রায় ৫শ হাজার পাউন্ডের বাড়ি ছেড়ে বাচ্চাদের নিয়ে তিনি হোটেলে উঠেছেন। তিনি জানান, তিন সন্তান নিয়ে বিবাহ বিচ্ছেদের পর নিঃস্বঙ্গ সানার সঙ্গে পরিচিত হবার পর বিয়ে করেছিলেন তিনি। বিপদের সময়ে প্রতিবেশীদের সহযোগিতার জন্যে সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান ইমতিয়াজ মোহাম্মদ।

Leave a Reply

More News from যুক্তরাজ্য

More News

Developed by: TechLoge

x