ইউনেস্কো এমজিআইইপির গভর্নিং বোর্ডের সদস্য হলেন সোনিয়া

ব্রিট বাংলা ডেস্ক :: ভারতের নয়াদিল্লির মহাত্মা গান্ধী ইন্সটিটিউট অব এডুকেশন ফর পিস অ্যান্ড সাসটেইনেবিলিটি ডেভেলপমেন্টের (এমজিআইইপি) গভর্নিং বোর্ডের সম্মানিত সদস্য হিসেবে মনোনীত হয়েছেন মাইক্রোসফট বাংলাদেশ, মিয়ানমার, নেপাল, ভূটান ও লাওসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সোনিয়া বশির কবির। আগামি চার বছর তিনি এ সংস্থাটির সদস্য হিসেবে দায়িত্বপালন করবেন।

গভর্নিং বোর্ডের সদস্য হিসেবে সংস্থার সাধারণ নীতি ও পরিচালনা-সংক্রান্ত কর্মকাণ্ড, সংস্থার বিভিন্ন প্রোগ্রাম ও বার্ষিক বাজেট, এ অঞ্চলের সদস্য রাষ্ট্রগুলোর চাহিদা অনুযায়ী কর্মকাণ্ড নিশ্চিতকরণ, বাস্তবায়ন এবং সিদ্ধান্ত গ্রহণের দায়িত্বপালন করবেন সোনিয়া বশির কবির।

এ প্রসঙ্গে সোনিয়া বশির কবির বলেন, “ইউনেস্কো এমজিআইইপির গভর্নিং বোর্ডের একজন সদস্য মনোনীত হতে পারাটা আমার জন্য অত্যন্ত সম্মানের একটি বিষয়। বিশ্বের শিক্ষাব্যবস্থার অংশ হিসেবে মনোঃসামাজিক শিক্ষার টেকসই উন্নয়নে আমরা কাজ করব।”

গত ২০১২ সালে ইউনেস্কোর ক্যাটাগরি ১-এর গবেষণা সংস্থা হিসেবে দি ইউনেস্কো এমজিআইইপি প্রতিষ্ঠা করা হয় এবং এশিয়া ও প্যাসিফিক অঞ্চলে এটিই একমাত্র সংস্থা। শান্তি ও টেকসই উন্নয়নের জন্য শিক্ষার ক্ষেত্রে ৪.৭ লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে ইউনেস্কোর গুরুত্বপূর্ণ অংশ হিসেবে কাজ করে উক্ত সংস্থাটি। মানবতার জন্য শিক্ষার মূলমন্ত্র বিবেচনায় নিয়ে সংস্থাটি তাদের প্রোগ্রাম বা কর্মকাণ্ডগুলো মনোঃসামাজিক শিক্ষার আদলে সাজিয়ে শিক্ষাব্যবস্থা রূপান্তরের ব্যাপারে সচেষ্ট।

এছাড়া উদ্ভাবনী ডিজিটাল শিক্ষাব্যবস্থা নিশ্চিতকরণ এবং বিশ্বব্যাপী তরুণ প্রজন্মকে আগামী ২০৩০-এর টেকসই উন্নয়নের এজেন্ডা হিসেবে চিহ্নিত করা সংস্থাটির কাজের গুরুত্বপূর্ণ একটি অংশ।

নিজেদের কর্মদক্ষতা ও ব্যক্তিগত সক্ষমতার পরিচয় দিয়ে উল্লিখিত পরিচালনা পর্ষদের ১২ জন সদস্য মনোনীত হয়েছেন।

উল্লেখ্য, মোট ১২ জনের মধ্যে সাতজনই এশিয়া ও প্যাসিফিক অঞ্চলের ইউনেস্কো সদস্য রাষ্ট্র থেকে মনোনীত হয়েছেন।

Leave a Reply

Developed by: TechLoge

x