ব্রেক্সিট : ১৫ জানুয়ারী এমপিদের ভোটাভুটি : প্রধানমন্ত্রীর কাছে ২শ এমপির চিঠি

ব্রিটবাংলা ডেস্ক : প্রধানমন্ত্রীর প্রস্তাবিত ব্রেক্সিট ডিলের উপর শেষ পর্যন্ত আগামী ১৫ জানুয়ারী পার্লামেন্টে এমপিদের ভোটাভুটি হবে বলে জানা গেছে। এর আগে গত ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহে প্রস্তাবিত ব্রেক্সিট ডিলের উপর এমপিদের ভোটাভুটি হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু ভোটের ফলাফল নিয়ে শঙ্কিত প্রধানমন্ত্রী ভোটের তারিখ পরিবর্তন করেন। পরবর্তীতে ১১ জানুয়ারী ভোটাভুটি হতে পারে বলে ধারণা করা হলেও শেষ পর্যন্ত ১৫ জানুয়ারীকে ভোটাভুটির চুড়ান্ত তারিখ হিসেবে নির্ধারণ করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর অফিস থেকে বলা হয়েছে, আর দেরি করার সুযোগ নেই।
প্রধানমন্ত্রীর প্রস্তাবিত ব্রেক্সিট ডিলের সঙ্গে ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন এরিমধ্যে ঐক্যমত পৌঁছেছে। এখন পার্লামেন্টে এমপিদের কাছ থেকে ডিলের অনুমোদন নিতে হবে প্রধানমন্ত্রীকে। এ কারণেই ভোটাভুটি হচ্ছে। ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহে এ নিয়ে ভোটাভুটি হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু তাতে পরাজিত হবার আশঙ্কায় তারিখ পরিবর্তন করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী। ১৫ জানুয়ারীর ভোটাভুটিকে সামনে রেখে মঙ্গলবার দলীয় এমপিদের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী থেরিজা মে আবারো স্বাক্ষাত করবেন বলে জানা গেছে।
পার্লামেন্টে এমপিদের ভোটে প্রধানমন্ত্রীর প্রস্তাবিত ডিল পাশ না হলে নো ডিলের দিকেই যাবে ব্রেক্সিট। নো ডিলে ব্রেক্সিট হলে পরিণতি ভাল হবে না বলে ইতোমধ্যে সতর্ক করেছেন প্রধানমন্ত্রী থেরিজা মে।
এদিকে লিভ এবং রিমেইনার সমর্থক ব্রিটিশ পার্লামেন্টের ২০৯ জন এমপি স্বাক্ষরিত একটি চিঠি প্রধানমন্ত্রীর কাছে পাঠানো হয়েছে। চিঠিতে এমপিরা নো ডিলের ফলাফল কী হতে পারে তা জাতির সামনে পুরোপুরি খুলে বলার জন্যে প্রধানমন্ত্রীর কাছে আহ্বান জানিয়েছেন।
নো ডিল হলে ডোভার পোর্টে ভয়াবহ ট্রাফিম জ্যাম সৃষ্টি হতে পারে বলে আশঙ্কা রয়েছে। নো ডিলে ব্রেক্সিট হলে যে ট্রাফিক জ্যাম হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে তা মোকাবেলার প্রস্তুতি হিসেবে পরীক্ষামূলকভাবে প্রায় ১শ লরিকে চ্যানেল ট্যানেলের সামনে নিয়ে ট্রাফি জ্যামের সৃষ্টি করে যতোদ্রুত সম্ভব সব পরীক্ষা-নিরিক্ষা শেষে তাদের পাস দেওয়ার চেষ্টা করা হয়েছে। অন্যদিকে নো ডিলে ব্রেক্সিট হলে বর্ডার ইস্যুতে আয়ারল্যান্ড এবং নর্দার্ন আয়ারল্যান্ডে মারাত্মক বিশৃঙ্খলার সৃষ্টি হতে পারে বলেও আশঙ্কা রয়েছে। আর তা মোতাবেলার জন্যা ইংল্যান্ড এবং ওয়েলসের প্রায় ১ হাজারের বেশি পুলিশ অফিসারকে নর্দার্ন আয়ারল্যান্ডে নিয়ে বিশেষ প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে।
ডিল অথবা নো ডিল-যাই হোক, ২৯ মার্চ ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন ত্যাগ করতে হবে বৃটেনকে।

Leave a Reply

More News from যুক্তরাজ্য

Developed by: TechLoge

x