সিলেটের প্রথম জয়

সিলেট অফিস :: চিটাগং ভাইকিংসকে ১৬৯ রানের লক্ষ্য দিয়েছিল সিলেট সিক্সার্স। এ রান তাড়া করতে নেমে লক্ষে পৌছার আগেই নির্ধারিত ওভার শেষ হয়ে যায় চিটাগংয়ের। ফলে ৭ উইকেটে ১৬৩ রান করতে সক্ষম হয় মুশফিক বাহিনী।

এতে ৫ রানের জয় নিয়ে বিজয়ীর বেশে মাঠ ছাড়লেন ওয়ার্নাররা। এবারের আসরে এটিই সিলেট সিক্সার্সের প্রথম জয়। এর আগে বুধবার দুপুরে টস জিতে শুরুতে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ওভার শেষে ৫ উইকেটে ১৬৮ রান করে সিলেট সিক্সার্স।

শুরুতে ব্যাট করতে নেমে মাত্র ৬ রানের মধ্যে ৩টি উইকেট হারায় সিলেট। আউট হন লিটন দাস, নাসির হোসেন ও সাব্বির রহমান। তৃতীয় উইকেটে ডেভিড ওয়ার্নার ও আফিফ হোসেন ৭১ রানের জুটি গড়েন। এরপর আফিফ আউট হয়ে যান। ২৮ বল থেকে ৫টি চার ও ৩টি ছক্কার মারে তিনি করেন ৪৫ রান।

পরে ওয়ার্নারের সঙ্গে জুটি বাঁধেন নিকোলাস পুরান। দুজন চতুর্থ উইকেটে করেন আরও ৭০ রান। এরপর ওয়ার্নার আউট হলেও লড়াকু স্কোর পায় সিলেট। ৪৭ বল খেকে ওয়ার্নার করেন ৫৯ রান। আর পুরান ৩২ বল থেকে তিনটি চার ও তিনটি ছক্কার মারে করেন ৫২ রান।

এরপর সিলেট সিক্সার্সের দেওয়া ১৬৯ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই হোঁচট খায় চিটাগং ভাইকিংস। তাসকিন আহমেদের বলে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন মোহাম্মদ শাহজাদ। দ্বিতীয় উইকেটে মোহাম্মদ আশরাফুল করেন ২৩ বলে ব্যক্তিগত ২২ রান। ডেলপোর্ট করেন ৩৮ রানের অসাধারণ ইনিংস।

শুরুর বিপর্যয়ে কাটিয়ে উঠার চেষ্টা করেন সিকান্দার রাজা। ২৮ বলে ২টি করে চার-ছক্কায় ৩৭ রানের টর্নেডো ইনিংস খেলেন তিনি। এরপর আর কোনো ব্যাটসম্যান তেমন কিছু করতে পারেননি। শেষ পর্যন্ত ৭ উইকেটে ১৬৩ রান তুলতে সক্ষম হয় মুশফিকের দল। ২৪ বলে ১ চারের বিপরীতে ৪ ছক্কায় ৪৪ রান করে অপরাজিত থাকেন ফ্রাইলিংক। এবারের বিপিএলে সিলেটের এটা প্রথম জয়।

Leave a Reply

Developed by: TechLoge

x