পুলিশের মারপিটের ভিডিও নিয়ে তোলপাড় : তদন্ত শুরু করেছে ওয়েস্ট মিডল্যান্ডস পুলিশ (ভিডিওসহ)

Posted on by

ব্রিটবাংলা ডেস্ক : মধ্যবয়স্ক এক ব্যক্তিকে কয়েকজন পুলিশ অফিসার মিলে মারপিট করছেন! মিডল্যান্ডস এলাকা থেকে ধারণ করা এই ভিডিওটি নিয়ে তোলপাড় শুরু হয়েছে সামাজিক মাধ্যমে। এ নিয়ে তদন্ত শুরু করেছে ওয়েস্ট মিডল্যান্ডস পুলিশ।

সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া মাত্র আট সেকেন্ডের ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, চারজন পুরুষ এবং একজন মহিলা পুলিশ অফিসার মিলে একটি রুমের ভেতরে মধ্য বয়ষ্ক এক ব্যক্তির মাথায় কিল ঘুষি মারছেন। দুজন পুলিশ অফিসার লোকটির দুহাতে ধরে রখেছেন আর অন্য একজন পুলিশ অফিসার তার মাথায় অন্তত আটবার ঘুষি মেরেছেন।
মারপিটের আগে একজন অফিসার বাতাসের সিএস গ্যাস ছাড়াও দৃশ্যও ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে। শনিবার রাত ৯টার দিকে ভিডিওটি ধারণা করা হয়েছে। তবে এই ঘটনাটি কোথায় ঘটেছে তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি।
এই ভিডিওটি সামাজিক মাধ্যমে ব্যাপকভাবে প্রচারের পর টনক নড়ে ওয়েস্ট মিডল্যান্ডস পুলিশের। রোববার বিকেল ৩টার দিকে এক টুইট বার্তায় ওয়েস্ট মিডল্যান্ডস পুলিশ জানিয়েছেন, সামাজিক মাধ্যমে প্রচারিত ভিডিও থেকে পুলিশ অফিসারদের সনাক্ত করে তাদের শরীরের লাগানো বডি ক্যামেরার ফুটেজ পরীক্ষা নীরিক্ষা করবে। প্রয়োজনে তা দ্যা ইন্ডিপেনডেন্ট অফিসার ফর পুলিশ কন্ডাক্ট সংক্ষেপে আইওপিসি-তে পাঠানো হবে তদন্তের জন্যে।
এদিকে ২৫ বছর বয়সী শারীফ আথম্যান নামে এক ব্যক্তি নিজের মোবাইলে এই ভিডিও ফুটেজ ধারন করে সামাজিক মাধ্যমে শেয়ার দিয়েছেন বলে দাবী করেছেন। তিনি জানিয়েছেন, হানিমুন থেকে ফিরে আসা তার বন্ধুকে দেখার জন্যে তিনি সেদিকে যাচ্ছিলেন। এ সময় পাশের রোডে চিৎকার শুনে সামনে এগিয়ে যান। সেখানে গিয়ে দেখেন বেশ কয়েকজন তুর্কি পুরুষ বাইরে দাঁড়িয়ে আছে। আর ফ্ল্যাটের ভেতরে গিয়ে এই দৃশ্য দেখতে পান তিনি। তখন মোবাইল ক্যামেরা অন করে, কেনো তাকে মারধর করা হচ্ছে- পুলিশকে এই প্রশ্ন করেন। এর জবাবে পুলিশ তাকে এই ঘটনা থেকে দূরে থাকার পরামর্শ দিয়ে দরোজা বন্ধ করে দেয়।

Leave a Reply

More News from যুক্তরাজ্য

More News

Developed by: TechLoge

x