যুক্তরাজ্যলিগ্যাল পয়েন্ট

২৯ শে মার্চ থেকে বাড়ছে ইউকের ভিসা ফি : জেনে নিন কোথায় কত বাড়ছে

ব্রিটবাংলা ডেস্ক : শুধুমাত্র ভিসা ফি থেকে ব্রিটিশ সরকারের বাৎসরিক আয় কত, তা হয়তো হিসেব কষে বলা মুশকিল হবে। তবে এটা এক বাক্যে বলা যায়, ইউকের ভিসা ফি বিশ্বের বিভিন্ন দেশের তুলনায় সবচাইতে বেশি। বিশেষ করে ইন্ডেফিনিটি লিভ টু রিমেইন আবেদনের ফি তো দৃষ্টান্ত হয়ে আছে। লিভ টু রিমেইন আবেদন ফি বাড়তে বাড়তে ২ হাজার ৩শ ৮৯ পাউন্ডে গিয়ে টেকেছে। একটি পরিবারের চার সদস্য এক সাথে লিভ রিমেইনের জন্যে আবেদন করতে হলে প্রায় ১০ হাজার পাউন্ড শুধু ফি গুনতে হয়। আর কোন কারণে যদি আবেদন বাতিল বা ভুল হয়  তাহলে সব অর্থ হারাতে হয়।

গুরুত্বপূর্ন সংবাদের লিঙ্ক :

ইউকের এগ্রিকালচার সিজনাল ওয়ার্কার ভিসা : প্রতারক থেকে সাবধান (ভিডিওসহ)

http://britbangla24.com/news/74099

নতুন স্ট্রার্ট-আপ এবং ইনোভেটর ভিসায় ব্রিটেনে আসার সুযোগ (ভিডিওসহ)

মেশিন রিডেবল পাসপোর্ট এবং স্মার্ট কার্ড : বিপাকে প্রবাসীরা (ভিডিওসহ)

এইচএমআরসি’র নামে প্রতারকদের টেলিফোন বা ইমেইলের জবাব না দেওয়ার আহ্বান (ভিডিওসহ)

গুরুত্বপূর্ণ ভিডিও লিঙ্ক :

লিভ টু রিমেইন আবেদন ফি একদিনে বাড়েনি, ২০০৩ সালেও তা মাত্র পাঁচশ পাউন্ড ছিল। ক্রমান্বয়ে বাড়াতে বাড়াতে এখন প্রায় আড়াই হাজারে এসেছে। আগামীতে কোথায় নিয়ে যাওয়া হয় কে জানে। তবে এবার অন্যান্য ভিসার ফি বাড়িয়েছে টোরি সরকার। গত সাত মার্চ পার্লামেন্টে ভিসা ফি বৃদ্ধির অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

আগামী ২৯ শে মার্চ থেকে নতুন ভিসা ফি কার্যকর হবে। একই দিন থেকে ব্রেক্সিট হওয়ার কথা ছিল। যদিও তা পিছিয়ে ২২মে নিয়েছে ইইউ। তবে ব্রেক্সিটের পর ব্রিটিশ অর্থনীতির ধাক্কা সামলানোর জন্য ভিসা পদ্ধতিকে কাজে লাগানোর পরিকল্পনা করেছে সরকার। হোম অফিস ধারনা করছে ২০১৯-২০২০ সালে টিয়ার ২ ক্যাটাগরির ওয়ার্ক ভিসা, টিয়ার ৪ ক্যাটাগরির স্টুডেন্ট ভিসা এবং ইউকে ভিজিট ভিসার জন্যে প্রায় ৪ দশমিক ২ মিলিয়ন আবেদন পড়তে পারে।

২৯শে মার্চ থেকে ভিসা ফি বৃদ্ধির পাশাপাশি টিয়ার ১ এবং টিয়ার ২ ভিসা ক্যাটাগরিতে বিশেষ কিছু পরিবর্তন আসবে। এবার দেখা যাক, কোন ভিসার ফি কত বাড়বে…

ছয় মাসের শর্ট টার্ম ভিজিট ভিসার ফি ২ পাউন্ড বাড়িয়ে ৯৩ পাউন্ড থেকে বাড়িয়ে ৯৫ পাউন্ড করা হবে। * দু বছরের লংটার্ম ভিজিট ভিসার ফি ১১ পাউন্ড বাড়িয়ে ৩৫০ পাউন্ড থেকে ৩৬১ পাউন্ড করা হবে। * ৫ বছর মেয়াদী ভিজিট ভিসার বর্তমান ফি ৬৩৬ পাউন্ড। ১৯ পাউন্ড বাড়িয়ে তা করা হয়েছে ৬৫৫ পাউন্ড। *২৪ পাউন্ড বাড়ানো হয়েছে ১০ বছর মেয়াদী ভিজিট ভিসার ফি। বর্তমান এর ফি ৭৯৮ পাউন্ড। ২৯শে মার্চের পরে হবে ৮২২ পাউন্ড। * একাডেমিক ভিজিটর এবং প্রাইভেট মেডিক্যাল ট্রিটমেন্ট ভিসার ফি ৪ পাউন্ড বাড়িয়ে ১৮৬ পাউন্ড থেকে ১৯০ পাউন্ড করা হয়েছে। * এছাড়া অভারসিজ অপশনাল প্রায়োরিটি ভিসার (নন স্যাটলমেন্ট সার্ভিস) ফি নির্ধারণ করা হয়েছে ২২০ পাউন্ড। তবে বাড়ানো হয়েছে কিছু প্রায়োরিটি সার্ভিস ফিও। * ইন কান্ট্রি, সুপার প্রায়োরিটি সার্ভিস ফি ১৯০ পাউন্ড বাড়িয়ে ৮শ পাউন্ড করা হয়েছে। বর্তমানে এই ফি ৬১০ পাউন্ড। * ইন কান্ট্রি প্রায়োরিটি সার্ভিস বর্তমানে ৪৭৭ পাউন্ড। ২৩ পাউন্ড বাড়িয়ে তা করা হয়েছে ৫শ পাউন্ড। আর আউট অব কান্ট্রি প্রায়োরিটি ভিসা (জেনারেল) সার্ভিস ফি ২১২ পাউন্ড থেকে ৮ পাউন্ড বাড়িয়ে করা হয়েছে ২২০ পাউন্ড।
এছাড়া ইলেক্ট্রনিক ভিসা ওয়েভার ফি ১৫ পাউন্ড বাড়িয়ে ৩০ পাউন্ড করা হয়েছে।  হিথরো এয়ারপোর্টে টার্মিনাল ২, ৩ এবং ৪ এর ফাস্ট-ট্র্যাক বর্ডার ফোর্স ফি ১ দশমিক ৩০ পাউন্ড বাড়িয়ে ৫ দশমিক ২০ পাউন্ড করা হয়েছে। অন্যদিকে বর্ডার ফোর্সের বেসিক সার্ভিসের বাইরে অন্য সার্ভিস নেওয়ার জন্যে বর্তমানে ঘন্টায় ৫৩ দশমিক ৮ পাউন্ড ফি থাকলেও এর সঙ্গে আগামী জুন থেকে আলাদা দুটি সার্ভিসের জন্যে আলাদা দুটি ফি যথাক্রমে ৫৭ দশমিক ৩৩ পাউন্ড এবং ৭৭ দশমিক ৪০ পাউন্ড ফি ধার্য্য করা হয়েছে। এরমধ্যে প্রথমটি নেওয়া হবে প্রশাসনিক সহযোগিতা প্রদানের জন্যে আর দ্বিতীয়টি নেওয়া হবে সরকারের অন্য ডিপার্টমেন্টের সহযোগিতার জন্যে।
এদিকে নতুনভাবে শুরু হওয়া ইনোভেটর এবং স্টার্টআপ ভিসার জন্যে টিয়ার ১ ক্যাটাগরির বিলুপ্ত হতে যাওয়া এন্ট্রেপ্রেনার এবং গ্রাজুয়েট এন্ট্রেপ্রেনার ভিসার সমপরিমান ফি থাকবে আপতত। এছাড়াও নতুন টেম্পোরারি সিজনাল ওয়ার্ক পারমিটের ২৪৪ পাউন্ড এন্টি ক্লিয়ারেন্স ফি দিতে হবে।
নতুনভাবে নির্ধারিত সব ভিসা আবেদনের ফি কার্যকর হবে ৩০শে মার্চ থেকে।

 

Related Articles

Back to top button