দেড় লাখ অ্যাকাউন্ট সরিয়েছে টুইটার

Posted on by

গত বছরের শেষ ছয় মাসে টুইটার প্ল্যাটফর্ম থেকে দেড় লাখের বেশি অ্যাকাউন্ট মুছে ফেলার কথা জানিয়েছে টুইটার কর্তৃপক্ষ। সন্ত্রাসী কার্যক্রমের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট থাকার অভিযোগে এসব অ্যাকাউন্ট সরানো হয়েছে বলে জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। অ্যাকাউন্টগুলো সরানো হয়েছে গত বছরের জুলাই থেকে ডিসেম্বরের মধ্যে। এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

টুইটার কর্তৃপক্ষ বলছে, সন্ত্রাসবাদ নিয়ে তাদের প্ল্যাটফর্মে শূন্য সহনশীলতার নীতি বাস্তবায়ন করতে চায়।

প্রতিষ্ঠানটির লিগ্যাল পলিসি, ট্রাস্ট ও সেফটি বিভাগের প্রধান বিজয় গাড্ডা বলেছেন, যে পরিমাণ অ্যাকাউন্ট সরানো হয়েছে, তা গত বছরের প্রথমার্ধের চেয়ে ১৯ শতাংশ কম। অর্থাৎ, টুইটারে বাজে কনটেন্ট কিছুটা হলেও কমেছে।

গত বৃহস্পতিবার এক ব্লগ পোস্টে টুইটার বলেছে, যে পরিমাণ অ্যাকাউন্ট সরানো হয়েছে, তার অন্তত ৯০ শতাংশ স্বয়ংক্রিয় পদ্ধতিতে করা হয়েছে। স্বয়ংক্রিয় এ পদ্ধতি অভ্যন্তরীণভাবে তৈরি ও উন্নয়ন করা। যেসব টুইটার অ্যাকাউন্ট সরানো হয়েছে, তার বেশির ভাগই বিশ্বের কোনো না কোনো দেশের সরকারের পক্ষ থেকে অনুরোধ এসেছে। এর মধ্যে অন্তত ৮৬ দেশ থেকে অনুরোধ করা হয়েছে বিভিন্ন ধরনের অ্যাকাউন্ট সরিয়ে নিতে। এর মধ্যে যুক্তরাষ্ট্র থেকে এসেছে সবচেয়ে বেশি অনুরোধ।

বৃহস্পতিবার টুইটার প্রকাশিত ট্রান্সপারেন্সি প্রতিবেদনে বলা হয়, যুক্তরাষ্ট্র সরকারের কাছ থেকে টুইটার অ্যাকাউন্টের তথ্য চাওয়ার হার মোট বিশ্বের ৩০ শতাংশ। এরপর আছে ২৪ শতাংশ—জাপানের। এ ছাড়া যুক্তরাজ্য ১৩ শতাংশ, ভারত ৬ শতাংশ ও ফ্রান্স ৫ শতাংশ।

টুইটারের সাম্প্রতিক প্রতিবেদন অনুযায়ী, গত প্রান্তিকে বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে টুইটারের কাছে কোনো তথ্য চাওয়া হয়নি। গত বছরের প্রথম প্রান্তিকে একটি অ্যাকাউন্ট–সম্পর্কিত তথ্য চেয়েছিল বাংলাদেশ সরকার।

Leave a Reply

Developed by: TechLoge

x