বিজেপি হটাতে অন্য দলের প্রধানমন্ত্রী মানবে কংগ্রেস

Posted on by

ব্রিট বাংলা ডেস্ক :: বিজেপিকে দিল্লির শাসন ক্ষমতা থেকে হটাতে নিজ জোটের বাইরে অন্য কাউকে প্রধানমন্ত্রী বানাতে আপত্তি নেই ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসের। লোকসভায় শেষ ধাপে ভোটের আগে এমনটিই জানালেন রাজ্যসভার বিরোধী দলীয় নেতা গোলাম নবী আজাদ।

বিজেপি বা কংগ্রেস কেউই ক্ষমতায় আসতে পারছে না বলে স্বীকার করে নেন গোলাম নবী। কংগ্রেসের অন্যতম শীর্ষ নেতা বলেন, ‘আমরা শেষ দফার ভোটে পৌঁছে গেছি। দেশজুড়ে প্রচার করার পর এবার আমার যা অভিজ্ঞতা হয়েছে, তা হলো বিজেপি বা এনডিএ কেউই ক্ষমতায় ফিরছে না। দ্বিতীয় বারের জন্য প্রধানমন্ত্রীও হচ্ছেন না নরেন্দ্র মোদী। লোকসভা ভোটের পর কেন্দ্রে ক্ষমতাসীন হবে একটি অ-এনডিএ এবং অ-বিজেপি সরকার।’

কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী আগেও বলেছেন, তিনি প্রধানমন্ত্রী হতে চান না। যদিও এম কে স্ট্যালিন, তেজস্বী যাদব এবং দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল বিজেপি রুখতে রাহুলকে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে মানতে প্রস্তুত বলে জানিয়েছিলেন। শারদ পাওয়ারের মতো কেউ কেউ আবার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বা মায়াবতীকে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে চাইছেন।

এসব বিতর্কের মধ্যে গোলাম নবী বলেন, প্রধানমন্ত্রী পদ নিয়ে কোনও উচ্চাকাঙ্ক্ষা নেই কংগ্রেসের। দলের এক ও একমাত্র লক্ষ্য, বিজেপিকে ক্ষমতাচ্যূত করা। আর তার জন্য অ-বিজেপি দলগুলির মধ্যে থেকে যাকে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে সকলে মেনে নেবেন, তাকে মেনে নিতে কোনও আপত্তি থাকবে না কংগ্রেসের।

বিজেপি ‘ঘৃণা আর বিদ্বেষের রাজনীতির মাধ্যমে’ সরকার টিঁকিয়ে রাখতে চায় বলেও অভিযোগ করেন গোলাম নবী। আর এই সরকারটা ‘পুঁজিপতি ও শিল্পপতিদের স্বার্থরক্ষাকারী’ বলেও আখ্যা দেন তিনি।

Leave a Reply

Developed by: TechLoge

x