সংগ্রহ বড় হলো না প্রোটিয়াদের

Posted on by

ব্রিট বাংলা ডেস্ক :: বিশ্বকাপে টানা তিন হারের পর দক্ষিণ আফ্রিকার চতুর্থ ম্যাচে ভেসে যায়। বিশ্বকাপের সেমিফাইনালের স্বপ্ন সুতোর ওপর ঝুলে যায় শুরুতেই। সর্বশেষ ম্যাচে আফগানিস্তানের বিপক্ষে জয় টিমটিম করে জ্বলা আশাটা বাঁচিয়ে তুলেছিল। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে হারলে চলবে না, এমন এক ম্যাচে দারুণ ক্রিকেট খেলতে হতো প্রোটিয়াদের। কিন্তু ব্লাক ক্যাপদের বিপক্ষে ব্যাটিংটা ভালো হয়নি তাদের। নির্ধারিত ৪৯ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে তুলেছে ২৪১ রান।

বুধবার এজবাস্টনের মাঠ ভেজা থাকার কারণে টসে বিলম্ব হয়। কমিয়ে দেওয়া হয় একটি করে ওভার। বৃষ্টি এবং ভেজা মাঠ হওয়ায় টস জিতে দক্ষিণ আফ্রিকাকে ব্যাটিংয়ে পাঠাতে ভাবতে হয়নি কিউই অধিনায়কের। ব্যাটে নেমে প্রোটিয়ারা ভালো শুরু করতে পারেনি। শুরুতে সাজঘরে ফেরেন দলের সেরা ভরসা কুইন্টন ডি কক। তিনি মাত্র ৫ রান করেন। এরপর আমলা এবং ডু প্লেসিস ৫০ রানের জুটি গড়েন। ডু প্লেসিস ফেরেন দলের ৫৯ রানে।

ফর্মে ফেরা আমলা ধীরগতির এক ফিফটি করে ফেরেন। তিনি খেলেন ৮৩ বলে ৫৫ রানের ইনিংস। এছাড়া ওয়ানডে ক্যারিয়ারের আট হাজার রান পূর্ণ করেন আমলা। তার আগে ডু প্লেসিস ফিরে যান ২৩ রান করে। কিউই পেসারদের সামনে ধুঁকতে থাকা এইডেন মার্করামও ধীরে ৩৮ রানের এক ইনিংস খেলে ফেরেন।

তবে জেসি ভ্যান ডার ডুসন এবং ডেভিড মিলার বলে বলে রান তুলে খেলেন। দক্ষিণ আফ্রিকা তাই আড়াইশ’র কাছাকাছি রান তুলে থামে। ডুসন এ ম্যাচে খেলেন ৬৪ বলে ৬৭ রানের ইনিংস। তিনি তিনটি ছক্কা এবং দুটি চার মারেন। ডেভিড মিলার খেলেন ৩৭ বলে ৩৬ রানের ইনিংস। নিউজিল্যান্ডের হয়ে লকি ফার্গুসন তিন উইকেট নেন। একটি করে উইকেট নেন মিশেল সাটনার, ট্রেন্ট বোল্ট এবং কলিন ডি গ্রান্ডহোম। দক্ষিণ আফ্রিকা এ ম্যাচে হারলে তাদের বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্বে বিদায়ের পথ এক প্রকার পরিষ্কার হয়ে যাবে। বাংলাদেশের সেমিফাইনালে খেলার স্বপ্নেও একটা ধাক্কা লাগবে। কারণ নিউজিল্যান্ড পয়েন্ট টেবিলি এগিয়ে যাবে।

Leave a Reply

Developed by: TechLoge

x