কমিউনিটি

টাওয়ার হ্যামলেটস ইয়ুথ লীগ ইউনাইটেড এওয়ার্ড বিতরণ

শিশু কিশোরদের ভালো ফুটবলার হিসেবে গড়ে তুলার উদ্দেশ্য নিয়ে ২০০৫ সালে গঠিত হয় টাওয়ার হ্যামলেটস ইয়ুথ লীগ ইউনাইটেড। ক্লাবটি সারা বছরই টাওয়ার হ্যামলেটসসহ আশপাশ বারার শিশু কিশোরদের সাপ্তাহিক ফুটবল প্রশিক্ষন দিয়ে থাকে। আর গত বছর থেকে খুদে খেলোয়াড়দের উৎসাহ দিতে চালু করে বার্ষিক এওয়ার্ড সিরেমনি। গত বছরের ধারা বাহিকতায় এবার দ্বিতীয় এওয়ার্ড সিরেমনি অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছে ২ জুলাই মঙ্গলবার।

পূর্ব লন্ডনের বেথনালগ্রীনের অক্সফোর্ড হাউজে অনুষ্ঠিত এওয়ার্ড সিরেমনিতে ৭০জন শিশু কিশোরকে বিভিন্ন বয়স ভিত্তিক ক্যাটাগরিতে এওয়ার্ড দেয়া হয়।

অনুষ্ঠানের শুরুতে টাওয়ার হ্যামলেটস ইয়ুথ লীগ ইউনাইটেড এর খুদে খেলোয়াড়রা সচেতনামূলক ফুটবল নাটক প্রদর্শন করে। পরে বর্ষ সেরা খেলোয়াড়, গোল কিপার, গোল দাতা, সেরা ম্যানেজার, ক্লাব কর্মকর্তাসহ অভিভাবকদেরও এওয়ার্ড দিয়ে সম্মানিত করা হয়।
জাহির মিয়া ও জায়েলা ওদিসিনার যৌথ পরিচালনায় এওয়ার্ড সিরেমনির শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন ক্লাবের চেয়ারম্যান মাসুদ আহমদ। অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিলের ইয়াং মেয়র জামি বারী, লেখক ডেনিস আকিনমুলাসিরি, কাউন্সিলার সদরুজ্জামান খান, ওয়াফফিল্ড ট্রিনিটি ট্রাস্টের এলিনি চার্স, সংগঠনের সহ সভাপতি আনোয়ার মিয়া, সাধারণ সম্পাদক ফয়সল আহমদ, সহ সাধারণ সম্পাদক সাইফুল আলম, ট্রেজারার ইউনুছ আলী, সদস্য রানা মিয়া, সুমন আহমদ, সেবুল মিয়া, সামসুল আলী, ফয়সল মিয়া, আব্দুর রব, হাবিবুর রহমান, রাসেল চৌধুরী, রফিক ইসলাম,

এবার ১৭ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান পেল ওয়েলকাম স্কীলস এওয়ার্ড
ছবি ওয়েলকাম স্কীলস
ব্রিটেনে হোটেল ও রেস্টুরেন্ট সেক্টরের বিভিন্ন কোর্সের শিক্ষানবিশ ছাত্র-ছাত্রীসহ উক্ত সেক্টরের শেফ, ম্যানেজার, চাকুরি দাতাদের চতুর্থবারের মত এওয়ার্ড দিয়েছে ওয়েলকাম স্কিলস ইন্টারন্যাশনাল স্কুল অফ হসপিটালিটি।
গত ২৫ জুন মঙ্গলবার সেন্ট্রাল লন্ডনের দ্যা রয়েল গার্ডেন হোটেলের হল রুমে অনুষ্ঠিত হয় ওয়েলকাম স্কিল এওয়ার্ড সিরেমনি অনুষ্ঠান। এতে ব্যবসায়ী, কমিউনিটি নেতৃবৃন্দ, ইউনিভার্সিটির টিচার্স, সাংবাদিকগন উপস্থিত ছিলেন।
প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে জানানো হয় তারা বাংলাদেশেও হসপিটালিটি কোর্স শিখানোর উদ্দেশ্যে ঢাকায় ও সিলেটে দুই স্কুল প্রতিষ্টা করতে যাচ্ছেন।

ইতিমধ্যে ঢাকায় ব্রিটিশ প্রশিক্ষকদের মাধ্যমে আন্তর্জাতিক মানের ক্লাস শুরু হয়েছে। আগামী অক্টোবর মাসে সিলেটেও নতুন ক্যাম্পাসের উদ্বোধন হবে। উক্ত প্রতিষ্ঠান থেকে কোর্স সম্পন্ন করে বিশ্বের যেকোন দেশে চাকুরীর যোগ্যতা অর্জন করতে পারবে শিক্ষার্থীরা।
কোম্পানীর সেলস এন্ড এম্পøয়ার ডায়রেক্টর ওয়াসিম শেরওয়ানী ও সিনিয়র ট্রেনিং ম্যানেজার পেট্রিসিয়া পাসকিন্স এর যৌথ পরিচালনায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন কোম্পানীর পরিচালক কুলসুম হোসেন।

এসময় বক্তব্য রাখেন ক্রয়ডন কাউন্সিলের মেয়র কাউন্সিলার হুমায়ুন কবির, প্রফেসর ডেভিড রাসেল, প্রফেসর ডেভিড পসকিট এমবিই, ডেভিড ফুলয়েস, এন্ড্র পেনিংটন, এনাম আলী এমবিই, ম্যার্গেট ক্যাসিন। সভায় বক্তারা বলেন, ব্রিটেনে হসপিটালিটি সেক্টরে প্রতি বছর ৫ পার্সেন্ট হারে চাহিদা বাড়ছে। আর তাই এই সেক্টরের জন্য স্কিল স্টাফ তৈরী করতে এ ধরনের প্রতিষ্ঠান গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।
অনুষ্ঠানে ১৭টি ক্যাটাগরিতে এওয়ার্ড প্রদান করেন অনুষ্ঠানে আগত ব্যক্তিরা। এসময় উপস্থিত ছিলেন কোম্পানীর অপারেশন ডাইরেক্টর ফয়ছল হোসেন। অনুষ্ঠানের শেষ পর্যায়ে এওয়ার্ড সিরেমনী সফল করায় সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

Related Articles

Back to top button