সেকালের অমিতাভ-হেমা, একালের হৃতিক-দীপিকা

Posted on by

ব্রিট বাংলা ডেস্ক :: অনেকেরই হয়তো দেখা আছে ১৯৮২ সালে নির্মিত চলচ্চিত্র ‘সত্তে পে সত্তা’। অমিতাভ বচ্চন ও সাত ভাইয়ের কীর্তিকলাপ হাসাতে হাসাতে দর্শকদের পেটে খিল ধরিয়ে দিয়েছিল। সে সময়ের সুপারহিট এই ছবির কেন্দ্রীয় চরিত্রে অমিতাভ বচ্চন ও হেমা মালিনীর জুটিও অত্যন্ত জনপ্রিয় হয়েছিল। ছবির পরিচালক ছিলেন রাজ এন সিপ্পি। প্রায় ৩৭ বছর পর আবার শোনা যাচ্ছে, ‘সত্তে পে সত্তা’ ফিরে আসছে বড় পর্দায়। এই খবরও ইতিমধ্যে পুরোনো হয়ে গেছে। কারা থাকছেন অমিতাভ বচ্চন ও হেমা মালিনীর জায়গায়, তা জানতে দর্শক প্রতীক্ষায় ছিলেন। একাধিক তারকার নাম শোনা গেছে ইতিমধ্যে।

আপাতত প্রতীক্ষার অবসান হয়েছে। ভারতীয় সংবাদ সংস্থা টাইমস অব ইন্ডিয়া, ইন্ডিয়া টুডে, পিংক ভিলা সূত্র সর্বশেষ খবর বলছে, হৃতিক রোশন ও দীপিকা পাড়ুকোন থাকছেন অমিতাভ ও হেমা মালিনীর জায়গায়। ‘সত্তে পে সত্তা’র রিমেকের প্রযোজক রোহিত শেট্টি আর পরিচালক ফারহা খান।

‘সত্তে পে সত্তা’র রিমেকের প্রযোজক রোহিত শেট্টি আর পরিচালক ফারহা খানঅন্যদিকে ছবির আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে ক্যাটরিনাকে ভাবা হয়েছিল। কিন্তু ফারহার সঙ্গে দীপিকার সম্পর্ক বেশ ভালো। দীপিকা অনেক দিন ধরেই রোহিত আর ফারহার সঙ্গে কাজ করতে চাইছেন। এই প্রথম হৃতিক-দীপিকা একসঙ্গে কাজ করতে চলেছেন।

আপাতত ঘটা করে ঘোষণা দিচ্ছেন না হৃতিক কিংবা ফারহা। কেননা, হৃতিকের ‘সুপার থার্টি’র মুক্তি এই সপ্তাহেই। ছবি নিয়ে তিনি ব্যস্ত। তাই চান না ভক্তদের মনোযোগ অন্যদিকে ঘুরে যাক। ‘সুপার থার্টি’র মুক্তি কিছুদিন পর হয়তো সবাই মিলে ঘোষণা দেবেন, এমনটাই ভাবা যায়।

১৯৮২ সালের ‘সত্তে পে সত্তা’ ছবিটি ছিল দারুণ ব্যবসাসফল। যেখানে দেখা যায়, সাত ভাইয়ের সংসারে এসে পড়ে একমাত্র ভাবি। প্রায় বনমানুষদের মানুষ করার মতো করেই ছয় দেবরকে দেখাশোনা করতে হয় তাকে। এরই মধ্যে ওই সাত ভাই জড়িয়ে পড়ে খলনায়কের ষড়যন্ত্রে। ভাই, ভাবি ও বাকি ভাইদের বুদ্ধিবলে সমস্যার সমাধান হয়, সঙ্গে বাকি ছয় ভাইয়ের জীবনেও আসে নতুন প্রেমের বাতাস। অমিতাভ ও হেমা ছাড়াও ছবিতে শক্তি কাপুর, কাদের খান, সারিকার মতো নামী অভিনেতা-অভিনেত্রীরাও ছিলেন।

Leave a Reply

Developed by: TechLoge

x