বিয়ে করলেন লাক্স তারকা ইশানা

Posted on by

ব্রিট বাংলা ডেস্ক :: অভিনেত্রী ঈশানা খান বিয়ে করেছেন। পাত্র অস্ট্রেলিয়া প্রবাসী সারিফ চৌধুরী। পেশায় সারিফ একজন টেলিকম প্রকৌশলী।

গতকাল বুধবার আসরের নামাজের পর গুলশানের আজাদ মসজিদে দুই পরিবারের সদস্যদের উপস্থিতিতে তাদের বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হয় বলে ঈশানা কালের কণ্ঠকে জানিয়েছেন। তবে শোনা যাচ্ছে আরো আগেই এই অভিনত্রী পরিণয় সূত্রে আবদ্ধ হয়েছে। শোবিজ অঙ্গনে কান পাতলে এমনটাই শোনা যাচ্ছে। তবে ইশানা ৬ জুলাই সোশ্যাল হ্যান্ডেলে লেখেন ‘আলহামদুলিল্লাহ।’ যেখানে তার স্বজনেরা নতুন জীবনের কথা উল্লেখ করে শুভ কামানা জানাতে থাকেন।

বিষয়টি স্পষ্ট করেন ঈশানা নিজেই। কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘আসলে আমার বিয়ের তারিখ ঠিক হয়েছে ৬ জুলাই, আর বিয়ে হয়েছে ১০ তারিখে। এটা একটা বহুল প্রত্যাশিত বিষয়, কেননা সারিফের সঙ্গে আমার দুই বছরের পরিচয়। সেই পরিচয় থেকেই আজ আমরা দুজন দুজনার।’

সারিফ চৌধুরীর সাথেও এই প্রতিবেদকের কথা হয়। সারিফ কালের কণ্ঠকে বলেন, নতুন এক জীবনে প্রবেশ করলাম। ঈশানা আমার পরিচিত স্বাভাবিকভাবেই এই জীবনটা একটা মিশ্র অনুভূতির। নতুন ছন্দ, নতুন ভালোলাগা। আমাদের জন্য দোয়া করবেন। আপনাদের সকলের দোয়া নিয়ে আমরা সামনে এগিয়ে যেতে চাই।

সারিফ বলেন, আমি বাংলাদেশের আহসানুল্লাহ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে টেলিকমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে ব্যাচেলর ডিগ্রি সম্পন্ন করেছি। অস্ট্রেলিয়া গিয়ে পোস্ট গ্রাজুয়েশন সম্পন্ন করেছি। সেখানেই একটি টেলিকম কম্পানিতে টেলিকম ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে যোগদান করেছি। সেটাও তো ৮ বছর হয়ে গেল।

ঈশানা বলেন, আকস্মিকভাবেই বিয়েটা হয়ে গেল। গতকাল বনানী ক্লাবে দুই পরিবারের একটা অনুষ্ঠান হয়েছে। তবে বিয়ের আয়োজন বড় পরিসরেই হবে কিছুদিন পরে। আমাদের জন্য দোয়া করবেন।

জানা গেছে, আগামী ১৩ জুলাই তার স্বামী সারিফ চৌধুরী সিডনি ফিরে যাবেন। স্বামীর সঙ্গে ঈশানাও সিডনি যাবেন। আপাতত অভিনয় বাদ। সংসারের মন দিতে চান তিনি।

এদিকে শোবিজে থাকা প্রসঙ্গে ঈশানা জানান, আপাতত অভিনয় নয়, সংসারেই মন দিতে চান তিনি। প্রসঙ্গত, ২০০৯ সালে ‘লাক্স-চ্যানেল আই সুপারস্টার’ প্রতিযোগিতায় প্রথম রানার আপ হয়েছিলেন ঈশানা খান। এরপর বিজ্ঞাপন, নাটক, টেলিছবিতে কাজ করে তিনি জনপ্রিয়তা লাভ করেন।

Leave a Reply

Developed by: TechLoge

x