ট্যাংকার না ছাড়লে ইরান ‘কঠোর পরিণতি’ ভোগ করবে: জেরেমি হান্ট

Posted on by

ব্রিট বাংলা ডেস্ক :: ইরান হরমুজ প্রণালী থেকে একটি ব্রিটিশ তেল ট্যাংকার আটক করেছে। তেহরানের দাবি, আন্তর্জাতিক সামুদ্রিক আইন লঙ্ঘন করায় ব্রিটিশ ওই তেলে ট্যাংকার আটক করা হয়েছে।

অন্যদিকে, শুক্রবার রাতে ব্রিটিশ মন্ত্রিসভা এ ব্যাপারে একটি জরুরি বৈঠক করেছে। বৈঠক শেষে ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী জেরেমি হান্ট বলেছেন, ইরান তার দেশের তেল ট্যাংকার ছেড়ে না দিলে তেহরানকে ‘কঠোর পরিণতি’ ভোগ করতে হবে। খবর বিবিসির।

একইসঙ্গে তিনি সামরিক পদক্ষেপ নেয়ার সম্ভাবনা নাকচ করে দিয়ে বলেন, লন্ডন তেহরানের সঙ্গে কূটনৈতিক যোগাযোগের মাধ্যমে বিষয়টি সুরাহার চেষ্টা করছে।

ইরানের ইসলামি বিপ্লবী গার্ড বাহিনী বা আইআরজিসি শুক্রবার রাতে এক বিবৃতিতে জানায়, আন্তর্জাতিক আইন অমান্য করায় হরমুজ প্রণালী থেকে ২৩ ক্রু’সহ একটি ব্রিটিশ তেল ট্যাংকার আটক করা হয়েছে।

আইআরজিসি জানিয়েছে, তেল ট্যাংকারটি তিনটি আইন লঙ্ঘন করেছে। এটি আন্তর্জাতিক পানিসীমা থেকে ইরানের পানিসীমায় ঢুকে পড়েছিল, নিজেকে শনাক্তকরণ যন্ত্রপাতি বন্ধ করে রেখেছিল এবং আইআরজিসি’র পক্ষ থেকে বারবার সতর্ক করা হলেও তাতে ভ্রুক্ষেপ করেনি।

বিবৃতিতে আরো বলা হয়েছে, তেল ট্যাংকারটি আটক করে ইরানের উপকূলে নিয়ে আসা হয়েছে এবং আইনগত বিষয়গুলো খতিয়ে দেখার জন্য এটিকে হরমুজগান প্রদেশের বন্দর ও নৌচলাচল বিষয়ক সংস্থার কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

তেল ট্যাংকারটিতে ২৩ জন ক্রু থাকলেও ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী হান্ট দাবি করেছেন, তাদের মধ্যে একজনও ব্রিটিশ নাগরিক নেই।

Leave a Reply

Developed by: TechLoge

x