কমিউনিটি

আরতা’র গ্র্যান্ড ফিনালে রোববার : রেস্টুরেন্ট নোমিনেশন ২৪৪০টি

এশিয়ান রেস্টুরেন্ট এন্ড ট্যাকওয়ে এওয়াডস সংক্ষেপে আরতা-র ফাইনাল জাজিং সম্পন্ন হয়েছে। এর আগে তিন টি কোকিং কম্পিটিশন অনুষ্ঠিত হয় ক্যাম্ব্রিজ রিজনাল কলেজে ও সারের নেসকট কলেজে। কোকিং প্রতিযোগিতার জাজদের মার্কও যোগ হবে ফাইনাল জাজিং-এ।
ক্যানারীওয়ার্ফের রিভার সাইড প্লাজা হোটেলে অনুষ্ঠিত চুড়ান্ত অনুষ্ঠানে আরতা ফাউন্ডার ও সিইও এ এ মুনিম সালিক জানান, এবার এওয়ার্ডের জন্য প্রায় ২৪৪০শ রেস্টুরেন্ট আগ্রহ প্রকাশ করে। আর কাস্টমারদের মধ্যে বিপুল ক্যাম্পেইনের ফলে অনলাইনে ৯৬৮৮জন ব্যক্তি বা রেস্টুরেন্ট কাস্টমার এই নোমিনেশন প্রদানে অংশ নেন। অনুষ্ঠানে জানানো হয়, চ্যাম্পিয়ান অব দ্যা চ্যাম্পিয়ান এর জন্য এবারও প্রায় ৫০ হাজার পাউন্ড মূল্যের ট্রফি থাকছে। এছাড়া অন্যান্য ২৪টি ক্যাটাগরির এওয়ার্ডের জন্যও রয়েছে দৃষ্টিনন্দন ও ব্যতিক্রমী ট্রফি।
ফাইনেল জাজিং-এ সাংবাদিকদের সাথে আরো কথা বলেন, আরতা জাজ এবং এম্বেসেডর যথাক্রমে অক্সফোর্ড কালচারের চেয়ার এবং অক্সফোর্ড ব্রুক কলেজের হসপিটালিলিটি ডিপাটম্যান্টের চেয়ারম্যান ডোনাল সোলন, এক্সিকিউটিভ শেফ চাদ রহমান, সেলিব্রেটি ক্রিকেটার ডেভন ম্যালকম ও করবি মেয়র কাউন্সিলার মুজিবুর রহমান। তারা জাজিং এর কঠিন ও যথার্থ পলিসি সম্পর্কে তুলে ধরেন এবং সামগ্রিক আয়োজনে সন্তোষ প্রকাশ করেন।
ডোনাল সোলন বলেন, আরতা-এর সামগ্রিক আয়োজন, বিশেষ করে জাজিং পলিসি দেখে তিনি অভিভূত। ইলেকট্রনিক্যালি রেস্টুরেন্টগুলোর হাইজিন রেইটিং, গুগলসহ বিভিন্ন পর্যায়ের যথার্থ রিভিউ এখানে গুরুত্ব পাচ্ছে। আর বিশেষ করে কাস্টমাররা অনলাইনে এতে নোমিনেশন দিতে উতসাহিত হচ্ছেন।
চাদ রহমান বলেন, তিনি আরতাকে স্যালুট করেন। এর আয়োজন ইন্ডাস্ট্রিকে সত্যিকার অর্থে সহযোগিতা করছে।
এছাড়া আরতা-এর ম্যানেজম্যান্ট কমিটি মেম্বার কদরুল ইসলাম ও আফতারুজ্জামান ও ক্যানারী ওয়ার্ফের ডিরেক্টর জাকির খান এবং সাবেক মেয়র পারভেজ আহমদসহ আরো অনেকে উপস্থিত ছিলেন।
এদিকে কোকিং কম্পিটিশনে আরো জাজ হিসেবে অংশ নেন নেসকট কলেজের শেফ লেকচারার কুলদিপ সিং ও ক্যাম্ব্রিজ কলেজের শেফ লেকাচারার গ্রাহাম টেইলর।

Related Articles

Back to top button