খেলাধুলা

ক্রিকেটারদের নিবেদন নিয়ে ক্ষোভ, টেস্টে আলাদা দল চান পাপন

ব্রিট বাংলা ডেস্ক :: বাংলাদেশের টেস্ট দলে অনেক ঘাটতি। ভারত সফরেই সেটি স্পষ্ট। প্রধান কোচ রাসেল ক্রেগ ডমিঙ্গো টেস্ট দলকে ঢেলে সাজানোর কথা বলেছেন। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনও ডমিঙ্গোর সঙ্গে একমত। তিনি আশাবাদী, কয়েক বছরের মধ্যেই ভালো একটি টেস্ট দল পাবেন।

শনিবার হোটেল সোনারগাঁওয়ে বঙ্গবন্ধু বিপিএলের লোগো উন্মোচন অনুষ্ঠান শেষে পাপন বলেন, ‘কোচ যেটা বলেছে, সেটা তো নতুন কিছু না। আরো আগেই আমি আপনাদের বলেছিলাম। এখন আমরা অনেক নতুন ছেলেকে ট্রায়াল দেওয়াবো। আমরা ওয়ানডেতে মোটামুটি মানের দল।

টি-টোয়েন্টিতে আমাদের অনেক ঘাটতি ছিল। আগামী বিশ্বকাপের আগে টি-টোয়েন্টি দলটাও ঠিক করবো। আমাদের (টেস্টে) আলাদা একটি টিম করতে হবে। এটা আমাদের সবচেয়ে দুর্বল জায়গা। আমরা যে পরিকল্পনা নিয়ে এগোচ্ছি, আশা করি এক থেকে দেড় বছর পর একটা ভালো টেস্ট টিম আমরা দাঁড় করাতে পারবো।’

ভারতের কাছে ইন্দোর টেস্টে শোচনীয় পরাজয় নিয়েও ক্ষোভ ঝারেন পাপন। খেলোয়াড়দের মানসিকতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন তিনি। পাপন বলেন, ‘শুধু কাঠামোর কারণে সমস্যা না। আমি মনে করি, এর বাইরে আরও ব্যাপার আছে। এখানে শুধু পিচ বা পরিবেশ তৈরি করে লাভ হবে না। খেলোয়াড়দের মধ্যে থেকেও অনেক কিছু আসতে হবে।’

ভারত টেস্টে কীভাবে এত উন্নতি করেছে সেটাও উদাহরণ হিসেবে তুলে ধরলেন পাপন। তিনি বলেন, ‘তাদের (ভারত) খেলোয়াড়দের চিন্তাধারাই অন্যরকম। ওদের মন-প্রাণ, জীবন- সব কিছুই ক্রিকেটে। একটা ছেলে জাতীয় দলে সুযোগ পাবে কি না, তা নিয়ে ওরা (ভারতীয় ক্রিকেটাররা) চিন্তাও করে না। একটা বাচ্চা ছেলে স্কুল টিমে সুযোগ পাবে, এটাই ওদের লক্ষ্য। রঞ্জি ট্রফিতে খেলতে হবে, এতেই জান দিয়ে দিচ্ছে। দিন-রাত কষ্ট করছে। জাতীয় দল নিয়ে চিন্তাই করে না। এত ডিসিপ্লিন, এত নিয়ম-কানুন মানে ওরা। আমাদের মধ্যে এই জিনিসটা দেখতে পাই না। এটা এত সহজে আসবে না। হয়তো আসবে, তবে একটু সময় লাগবে।’

Related Articles

Back to top button