কমিউনিটি

উজবেকিস্তান সফরকারী ব্রিটিশ বাংলাদেশী সাংবাদিক ও মিডিয়া ব্যক্তিত্বদের সম্বর্ধনা দিলো বাংলাদেশ হাইকমিশন

উজবেকিস্তান সফররত ব্রিটিশ বাংলাদেশী সাংবাদিক ও মিডিয়া ব্যক্তিত্বদের সাথে নিয়ে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে বসবাসরত প্রবাসী বাংলাদেশিদের সাফল্য সাড়ম্বরে উদ্যাপন করলো সেখানকার বাংলাদেশ হাইকমিশন।
উজবেকিস্তান, কাজাখস্তান, কিরগিস্থান ও আফগানিস্তানের দায়িত্বে নিয়োজিত বাংলাদেশের হাই কমিশনার মিঃ মাসয়ুদ মান্নানের আমন্ত্রণে এক সপ্তাহের সফরে সেদেশ ভ্রমণকারী ব্রিটিশ বাংলাদেশী সাংবাদিক ও মিডিয়া ব্যক্তিত্বদের সম্মানে বাংলাদেশ হাইকমিশনের পক্ষ থেকে ২১ নভেম্বর দূতাবাসের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত এই অনুষ্ঠানে বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রদূত ও কূটনীতিকরা উপস্থিত ছিলেন।
অনুষ্ঠানের শুরুতে সম্বর্ধিত সাংবাদিকদের ফুল দিয়ে স্বাগত জানান বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মাসয়ুদ মান্নান।
তিনি তার সূচনা বক্তব্যে বৃটেনের মূলধারায় ব্রিটিশ বাংলাদেশী কমিউনিটির আজকের অর্জন ও সাফল্যগাঁথা তুলে ধরে বলেন, বাংলাদেশী ও বাংলাদেশি বংশোদ্ভূতদের সাফল্যের উদ্যাপন বাংলাদেশকে বিশ্বে অনন্য এক মর্যাদার আসনে অধিষ্ঠিত করবে।ব্রিটেনের বাংলাদেশী কমিউনিটি আজ নানা ক্ষেত্রে সুপ্রতিষ্ঠিত। তিনি জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ে তুলতে প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে যে বিশাল কর্মযজ্ঞ চলছে, তাতে প্রবাসী প্রজন্মের মেধা, জ্ঞান ও দক্ষতাকে কাজে লাগানোর উপর গুরুত্বারোপ করেন।
নব্বইয়ের দশকে বিলাতে বাংলাদেশ হাইকমিশনে কর্মরত থাকাকালীন সময়ে বিলাতের বাংলা সাহিত্য সংস্কৃতি চর্চায় তার সম্পৃক্ত  থাকার কথা উল্লেখ করেন জনাব মসয়ুদ মান্নান।
সাপ্তাহিক জনমত ও কারি লাইফ ম্যাগাজিনের প্রধান সম্পাদক, লন্ডন বাংলা প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি সৈয়দ নাহাস পাশার নেতৃত্বে প্রতিনিধি দলে ছিলেন চ্যানেল এস এর সিনিয়র নিউজ প্রেজেন্টার ডাঃ জাকি রেজওয়ানা আনোয়ার এফ.আর.এস.এ, লন্ডন বাংলা প্রেসক্লাবের সাবেক সহসভাপতি ও সাপ্তাহিক জনমত এর ম্যানেজিং ডিরেক্টর আমিরুল ইসলাম চৌধুরি, অনলাইন রেডিও ‘রিলাক্স’ এর অনুষ্ঠান প্রযোজক ও উপস্থাপক, বিশিষ্ট ট্রেভেল এন্ড ট্যুর এক্সপার্ট সামি সানাউল্লাহ, সাপ্তাহিক জনমত এর চীফ এক্সিকিউটিভ জুনেদ চৌধুরী, লন্ডনের কিং’স কলেজ বাংলাদেশ সোসাইটির সদস্য এবং ব্রিটবাংলা২৪ কমের ইয়ুথ এডিটর প্রপা রেজওয়ানা আনোয়ার এবং লন্ডন বাংলা প্রেসক্লাবের সাবেক সহ সভাপতি মাহবুব রহমান।
অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের বাইরে বাংলাদেশি মহিলাদের সাফল্য ও অর্জন বিষয়ে আলোচনা উপস্থাপন করেন ডাঃ জাকি রেজোয়ানা আনোয়ার এফআরএসএ।
প্রতিনিধি দলের প্রধান, কমনওয়েলথ জার্নালিষ্ট এসোসিয়েশন (সিজেএ) এর ভাইস প্রেসিডেন্ট, সাপ্তাহিক জনমত ও করি লাইফ ম্যাগাজিনের প্রধান সম্পাদক, সৈয়দ নাহাস পাশা তাঁর বক্তব্যে যুক্তরাজ্য প্রবাসী বাংলাদেশিদের সাফল্যগাঁথা তুলে ধরেন। তিনি আরো বলেন, উজবেকিস্তান বিদেশি বিনিয়োগের জন্য তৈরি হচ্ছে। বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ উদ্যোক্তারা এখানকার বাংলাদেশ হাইকমিশন ও উজবেকিস্তান সরকারের সহযোগিতা নিয়ে বাংলাদেশ ও উজবেকিস্তানের মধ্যে বাণিজ্যিক সম্পর্ক সুদৃঢ় করতে ভুমিকা রাখতে পারেন।
অনুষ্ঠানে উজবেকিস্তানে বসবাসকারী বাংলাদেশীদের পক্ষে বক্তব্য রাখেন গোলাম নবী। প্রতিনিধি দলের সর্বকনিষ্ঠ সদস্য প্রপা রেজোয়ানা আনোয়ার বৈশ্বিক পর্যায়ে বাংলাদেশি তরুণদের ইতিবাচক উদ্যোগ সম্পর্কে একটা প্রেজেন্টেশন উপস্থাপন করেন।
পরে ডাঃ জাকি রেজোয়ানা আনোয়ার ও তার মেয়ে প্রপা আনোয়ার কয়েকটি গান গেয়ে শোনান। গানের ফাঁকে ফাঁকে হাইকমিশনার মাসয়ুদ মান্নান তাঁর প্রকাশিতব্য একটি বই থেকে তারই অনুদিত কয়েকটি উজবেক ভাষায় রচিত কবিতা আবৃতি করেন।
অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন হাইকমিশনের সোশ্যাল সেক্রেটারি শাখলো গাফুরভা। অনুষ্ঠানের সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছিলেন হাইকমিশনের কনসুলার নৃপেন্দ্র দেবনাথ।
অনুষ্ঠান শেষে অভ্যাগত অতিথিদের নিজ হাতে রান্না করা নানা পদের বাংলাদেশী খাবার দিয়ে আপ্যায়ন করেন বাংলাদেশ হাইকমিশনারের সহধর্মিনী প্রফেসর নুজহাত মান্নান।
ব্রিটিশ বাংলাদেশী সাংবাদিকদের সম্মানে আয়োজিত বিশেষ এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত আমন্ত্রিত অতিথিদের মধ্যে ছিলেন উজবেকিস্তানের সাবেক সংস্কৃতি ও ক্রিড়া মন্ত্রী প্রফেসর তুরসুনালি কুজিভ, উজবেকিস্তানে নিযুক্ত হাংগেরিয়ান এম্বেসেডর পিটার সাজান্তো, কিরগিজ রিপাবলিক এম্বেসির উর্ধতন কূটনীতিক নুরলান জুমালিভ, আফগানিস্তান দূতাবাসের প্রতিনিধি আজমাল আমিন, রাশিয়ান ফেডারেশন এম্বেসির সিনিয়র এডভাইজার সারগেই সকোলভ, এম্বেসি অফ ইজিপ্ট এর মুহাম্মাদ এইচ. ই. সাক্কারি, ইন্ডিয়ান কালচারাল সেন্টারের ড. শিপা ঘোষ, ইউনিভার্সিটি অফ অরিয়েন্টাল লেংগুয়েজেস এর প্রফেসর বায়াত রাক্সমাতভ ও ডক্টর সিরাজিদ্দিন নুরমাতভ, অর্গেনাইজেশন ফর সিকিউরিটি এন্ড কো-অপারেশন ইন ইউরোপ (ওএসসিই) এর অফিসার ইন চার্জ রিচার্ড হুইলার, ফ্যাশন ডিজাইনার মারখামাট উমারভা, অক্সাস কালচার এর হুসনিদ্দিন জুমালিভ, মহল্লা চেয়ারম্যান রাসুলি জুলফিয়া, এম্বেসি অফ ফ্রান্সের প্রতিনিধি, ইউনিভার্সিটি অফ ওয়ার্ল্ড লাঙ্গুয়েজেস এর ফ্যাকাল্টি অফ ট্রান্সলেশন এর বেজিওম খেলবেকভাব, লাল বাহাদুর শাস্ত্রী সেন্টার ফর ইন্ডিয়ান কালচার এর নাদিরা বাজারভা, বাংলাদেশী কমিউনিটির মুহাম্মদ আব্দুর রউফ, এলেন অর্গমালাকার প্রমুখ।
অনুষ্ঠানের শুরুতে বাংলাদেশের ব্লু ইকোনমির উপর একটি তথ্যচিত্র দেখানো হয়।
ব্রিটিশ বাংলাদেশী সাংবাদিক প্রতিনিধি দলটি ১৬ নভেম্বর থেকে ২২ নভেম্বর পর্যন্ত উজবেকিস্তানের রাজধানী তাশখন্দ, বোখারা ও সমরখন্দ সফর করেন।
১৬ নভেম্বর তাশখন্দ ইসলাম করিমভ আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে পৌঁছালে বাংলাদেশ হাইকমিশনের প্রতিনিধিবৃন্দ তাদের স্বাগত জানান। অইদিনই সফরকারীরা তাশখন্দের বিভিন্ন বিভিন্ন ঐতিহাসিক স্থান ও স্থাপনা পরিদর্শন করেন।১৭ নভেম্বর রোববার তাশখন্দে বাংলাদেশের  রাষ্ট্রদূতের অফিসিয়াল বাসভবনে নৈশভোজে যোগ দেন সফররত অতিথিরা। প্রতিনিধি দলটি ১৮ থেকে ২০ নভেম্বর পর্যন্ত ঐতিহাসিক বোখারা ও সমরখন্দ সফর করেন। ২২ নভেম্বর তারা যুক্তরাজ্যে ফিরে যান।

Related Articles

Back to top button