আন্দোলন সংগ্রামের মধ্যে দিয়ে সরকারকে সরাতে হবে : ফখরুল

ব্রিট বাংলা ডেস্ক :: বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বর্তমান অবস্থার বর্ণনা করে বলেছেন, এর থেকে মুক্তির একটাই উপায় বদলে যাওয়া। বদলে যাওয়ার একটাই পথ, আন্দোলন সংগ্রামের মধ্যে দিয়ে সরকারকে সরাতে হবে।

আজ শনিবার দুপুরে ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন একাংশের আয়োজিত এক ভার্চুয়াল আলোচনায় তিনি এসব কথা বলেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, আজকে বিনা বিচারে হত্যা, গুম করে দেওয়া, এগুলোর মধ্য দিয়ে ভয়ের সৃষ্টি করা হয়েছে।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, বদলে যাওয়ার একটাই পথ, আন্দোলন সংগ্রামের মধ্যে দিয়েই সরকারকে সরাতে হবে। আমরা অনেক চেষ্টা করছি। তবে সফল হচ্ছি না। আজকে গণতন্ত্রের জন্য আমাদের নেত্রী কারাগারে। ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান দেশের বাইরে। আমাদের দলের নেতাকর্মীরা এক লাখ মামলায় ৩৫ লাখ আসামি। হাজার হাজার নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করা হয়। হত্যা করা হয়, গুম করা হয়। মিথ্যা মামলায় জড়ানো হয়। তারপরও আমরা চেষ্টা করে যাচ্ছি।

সাংবাদিকরাই গণতন্ত্রের মূলভিত্তি উল্লেখ করে তিনি বলেন, মুক্ত সাংবাদিকতা না থাকলে গণতন্ত্র কখনোই বিকশিত হতে পারে না। গণতন্ত্রের মূল বিষয়টাই হলো সংবাদ মাধ্যম। সবদেশে সবকালে সাংবাদিকরা প্রধান ভূমিকা পালন করেছে।

ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের একাংশের সভাপতি কাদের গণি চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলামের সঞ্চালনায় ভার্চ্যুয়াল এ আলোচনায় আরও বক্তব্য রাখেন জামায়াতে ইসলামীর সেক্রেটারি জেনারেল মিয়া গোলাম পরওয়ার, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন (বিএফইউজে) একাংশের সভাপতি রুহুল আমীন গাজী, মহাসচিব এম আব্দুল্লাহ, সাবেক মহাসচিব এম এ আজিজ, সিনিয়র সাংবাদিক আব্দুল আউয়াল ঠাকুর, ডিইউজের সাবেক সাধারণ সম্পাদক বাকের হোসাইন, ডিইউজের সহ-সভাপতি নুরুল আমীন রোকন, বাছির জামাল, রাশেদুল হক, জাতীয় প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি কামাল উদ্দিন সবুজ, ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাবেক সাধারণ সম্পাদক মুরসালিন নোমানী, ফটো জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের সাবেক সভাপতি একেএম মহসীন প্রমুখ।

Advertisement