আব্দুস সাত্তার ছিলেন আপাদমস্তক একজন নিবেদিত মানুষ

সিলেট অফিস :: আওয়ামীলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য নুরুল ইসলাম নাহিদ এমপি বলেন, সমাজ হৈতষী ও প্রজ্ঞাবান ব্যক্তিত্ব আব্দুস সাত্তার ছিলেন আপাদমস্তক একজন নিবেদিত মানুষ। পঞ্চখন্ড তথা বিয়ানীবাজারের শিল্প-সাহিত্য, সংস্কৃতি ও সামাজিক ক্ষেত্রে তার অবদান ছিল অপরিসীম। তার এ বিদায়ের ভেতর দিয়ে এতদাঞ্চলের মানুষ কেবল একজন গুনী ব্যক্তিত্ব হারায়নি, হারিয়েছে একজন অভিভাবক; যা কখনো পূরণ হবার নয়। তিনি বলেন, তার মতো আলোকজনের বার্তা সমাজের সর্বস্তরে ছড়িয়ে দিতে হবে।

বিয়ানীবাজার উপজেলার সর্বজন শ্রদ্ধেয় সালিশ ব্যক্তিত্ব, বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী, পঞ্চখন্ড গোলাবিয়া পাবলিক লাইব্রেরির সম্পাদক, ইমামবাড়ী হাফিজিয়া মাদরাসা ‘হযরত গোলাব শাহ (রহ.) ওয়াকফ এস্টেট’র সভাপতি, কসবা-খাসা গ্রাম কমিটির আহবায়ক প্রয়াত আব্দুস সাত্তার স্মরণে শোকসভা ও দোয়া মাহফিলে তিনি উপরোক্ত কথাগুলো বলেন। মঙ্গলবার দুপুর ২টা পঞ্চখন্ড হরগোবিন্দ সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে এ শোকসভা ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করে আব্দুস সাত্তার স্মৃতিচারণ পরিষদ।

আব্দুস সাত্তার স্মৃতিচারণ পরিষদের আহবায়ক, বিয়ানীবাজার পৌরসভার মেয়র মো. আব্দুস শুকুরের সভাপতিত্বে ও আব্দুস সাত্তার স্মৃতিচারণ পরিষদের সদস্য সচিব আতাউর রহমানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বিয়ানীবাজার সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক দ্বারকেশ চন্দ্র নাথ, শিক্ষাবিদ আলী আহমদ, মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির কেন্দ্রীয় কমিটির সহ সভাপতি মজির উদ্দিন আনসার, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল হাছিব মনিয়া, কবি ফজলুল হক, সিলেট জেলা পরিষদ সদস্য নজরুল হোসেন, বিয়ানীবাজার আদর্শ মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ মোহাম্মদ মুজিবুর রহমান, সহকারি অধ্যাপক আব্দুল খালিক, পঞ্চখন্ড হরগোবিন্দ সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুল হাছিব জীবন, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি সামছুল হক, বিয়ানীবাজার বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জিয়াউদ্দীন আহমদসহ আরো অনেকে।
এর আগে তিনি উপজেলা পরিষদ হল রুমে বিয়ানীবাজারের গণ মানুষের সাথে সাক্ষাত করে। এ সময় সাধারণ মানুষ তাদের সমস্যার তুলে ধরেন।

এছাড়াও তিনি বিয়ানীবাজারে উপজেলা চত্বরের পশ্চিম-দক্ষিণ পাশে উপজেলা কমপ্লেক্সের নির্মাধীন নতুন ভবণনর দেয়ালে অংকিত ‘চেতনায় বাংলাদেশ’ ম্যুরালে উদ্বোধন করেন।

Advertisement