আর্সেনালকে হারিয়ে সেরা ফর্মে ফেরার বার্তা দিল ম্যানসিটি

হঠাৎ খেই হারিয়ে ফেলা ম্যানচেস্টার সিটি আবারো স্বরূপে ফিরে এসেছে। গতকাল শিরোপা প্রতিদ্বন্দ্বি আর্সেনালকে হারিয়ে প্রিমিয়ার লিগের পয়েন্ট তালিকার শীর্ষস্থানে উঠে গেছে পেপ গার্দিওলার শিষ্যরা।গতকাল এমিরেটস স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত লিগ ম্যাচে টেবিল টপার আর্সেনালকে ৩-১ গোলে হারিয়ে গানারদের সমান ৫১ পয়েন্ট সংগ্রহ করেছে ম্যানসিটি। তবে গোল ব্যবধানে এগিয়ে থেকে তালিকার শীর্ষস্থনটি নিজেদের দখলে নিয়েছে বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা। যদিও সিটির এই শীর্ষস্থানে আরোহন সাময়িক। কারণ আর্সেনালের হাতে রয়েছে বাড়তি একটি ম্যাচ। সিটিজেনরা এ পর্যন্ত লিগে ২৩টি ম্যাচ খেললেও আর্সেনাল খেলেছে ২২টি। স্টেডিয়ামের একাপাশে সফরকারী সমর্থকদের সামনে সিটি খেলোয়াড়রা বিজয় উৎসব করার সময় কোচ পেপ গার্দিওলার স্মিত হাসিই বলে দিচ্ছিল কতটা নির্ভার হয়েছেন তিনি। এর কয়েক মিনিট আগেই জ্যক গ্রিলিশ ও আর্লিং হালান্ডের গোলে দল তালিকার শীর্ষস্থান ফিরে পেলে শুন্যে হাত নেড়ে নিজের উচ্ছাস প্রকাশ করেন তিনি। বৃস্টির মধ্যে উত্তর লন্ডনে অনুষ্ঠিত ম্যাচের শুরুতে (২৪ মিনিটে) গোল করে সিটিকে এগিয়ে দেন কেভিন ডি ব্রুইনা। তবে বিরিতিতে যাবার আগমুহুর্তে (৪২ মিনিটে) বিতর্কিত এক পেনাল্টি থেকে গোলটি পরিশোধ করে দেন গানার তারকা বুকায়ো সাকা। তবে এতে এতটুকু বিচলিত মনে হয়নি বর্তমান চ্যাম্পিয়নদের। শেষ পর্যন্ত জয় নিয়েই মাঠ ছেড়েছে একমাস আগেও আর্সেনালের চেয়ে আট পয়েন্টে পিছিয়ে থাকা সিটিজেনরা। বিরিতর পর ৭২ মিনিটে গ্রিলিশ এবং ৮২ মিনিটে হালান্ড গোল করলে স্বস্তির জয় নিয়ে শিরোপা অক্ষুন্ন রাখার পথটিকেও মসৃন করে গার্দিওলার শিষ্যরা।

তিনি হয়তো এই সময়টির জন্যই অপেক্ষা করছিলেন। দলটি যে এখনো শিরোপা জয়ের প্রতি মনোযোগী সেটি প্রমানের প্রয়োজন ছিল গার্দিওলার। যদিও ছয় মৌসুমের মধ্যে পঞ্চম লিগ শিরোপা জয়ে গার্দিওলার মনোযোগের বিষয়ে কারো কোন সন্দেহ ছিলনা। কিন্তু দলের পারফর্মেন্সে মাঝে মধ্যেই হতাশ করেছে সমর্থকদের।লিভারপুল, ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড এবং টটেনহ্যামের কাছে পরাজয়ের পাশাপাশি নিজেদের মাঠে ব্রেন্টফোর্ডের কাছে এবং লিগ কাপ থেকে বিষ্ময়করভাবে বিদায়ে নেয়ায় ম্যানসিটিকে নিয়ে এমন গুজব সৃষ্টি হয়েছিল।গার্দিওলা বলেন,‘আমরা এক সময় পয়েন্ট তালিকার দ্বিতীয় স্থানে ছিলাম। কিন্তু অনুভব করলাম আরো একটু বেশী প্রয়োজন। এই সপ্তাহে আমাদের অনুশীলনে সেদিকেই ছিল বেশী মনোযোগ।সিটি কোচ বলেন,‘ প্রথমার্ধে আর্সেনাল অপেক্ষাকৃত ভালো খেলেছে। আমারা কিছুটা হাল্কা মেজাজে ছিলাম। ওই সময় আমার পরিকল্পনা ভালো ছিল না। তাদের (আর্সেনাল) বিপক্ষে লড়াই সহজ ছিল না। তবে আমরা ম্যাচে টিকে ছিলাম। আমরা খেলায় মনোযোগ দেই এবং আমাদের মানসম্পন্ন খেলোয়াড়রা পার্থক্য গড়ে দেয়।আপাতত তালিকার শীর্ষে উঠলেও সিটিকে শিরোপা ফেভারিট বলতে রাজি নন গার্দিওলা। বলেন,‘ এমিরেটসে আমরা আর্সেনালের বিপক্ষে জয় পেয়েছি। কিন্তু তাদের হাতে বাড়তি একটি ম্যাচ আছে। সুতরাং লিগে এখনো তারাই শীর্ষে। এখনো অনেক ম্যাচ বাকী আছে। সেই সঙ্গে আছে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ম্যাচও। তবে আমরা যদি আট নয় পয়েন্ট পিছিয়ে থেকে আজ খেলতাম এবং হেরে যেতাম তাহলে শিরোপার আশা প্রায় শেষ হয়ে যেত। কিন্তু আমাদের শিরোপার কাছাকাছি থাকার সুযোগ ছিল, আর সেটিই আমরা কাজে লাগিয়েছি। আপনি যদি শিরোপা পেতে চান তাহলে এর জন্য লড়তে হবে। আমরা এখনো সেটি পেতে চাই।’

Advertisement