ইংল্যান্ড এবং ওয়েলসে চালু হলো কোভিড-১৯ অ্যাপ

ব্রিটবাংলা ডেস্ক : দেরিতে হলেও ইংল্যান্ড এবং ওয়েলসে এনএইচএস কোভিড-১৯ কন্টাক্ট ট্রেইসিং অ্যাপ চালু করতে সক্ষম হয়েছে সরকার। করোনা ভাইরাস সংক্রমন প্রতিরোধে সরকারের বিভিন্ন পদক্ষেপের মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ এই কন্টাক্ট ট্রেইসিং অ্যাপ প্রথম দিকে একবার পরীক্ষামূলকভাবে চালু করে সফল হতে পারেনি সরকার। এবার গুগল এবং আপেলের সহযোগিতা নিয়ে নতুন অ্যাপ বানানো হয়েছে।

বৃহস্পতিবার থেকে ইংল্যান্ড এবং ওয়েলসে সবার জন্যে তা উন্মুক্ত করে দেওয়া হয়। এরিমধ্যে প্রায় মিলিয়ন মানুষ তা ডাউন লোড করেছেন।
এই অ্যাপে বেশ কয়েকটি ফিউচার রয়েছে। এরমধ্যে কিউআর কোডের মাধ্যমে যে কোনো জায়গায় নিজেকে রেজিস্টার করতে পারবেন। আপনি যেখানে যাবেন, সেখানকার করোনা ঝুঁকির মাত্রা আপনাকে জানিয়ে দেবে অ্যাপ। জানিয়ে দেবে করোনায় আক্রান্ত কারো সংস্পর্শে গেছেন কি না তাও।

ব্লুটুথ কানেকশনের মধ্যে কাজ করবে এই অ্যাপ। অন্য কারো মোবাইলে এই অ্যাপ ডাউনলোড থাকলে তার পাশে যাওয়ার সাথে সাথে তা আপনার মোবাইলে চলে আসবে। আপনার বা আপরান সংস্পর্শে আসা কারো শরীরে করোনা থাকলে সাথে সাথে তা জানিয়ে দেবে এবং বলবে সেল্ফ আইসোলিউশনে যাওয়ার জন্যে।
এই অ্যাপের প্রথম ভার্সনটি প্রথমে আইল অব ওয়াইটে পরীক্ষামূলকভাবে চালু করা হয়েছিল। তবে অতিমাত্রায় তথ্য সংগ্রহের অভিযোগে তা বাতিল করা হয়। গুগল এবং অ্যাপলের সহযোগিতা তথ্য-উপাত্তের নিরাপত্তা নিশ্চিত করে নতুন অ্যাপ তৈরী করা হয়। তবে নতুন অ্যাপটি পুরনো ফোনে কাজ করে না। এছাড়া বিশ্বের যে কোনো জায়গা থেকে অ্যাপল এবং গুগলের মাধ্যমে যে কোনো স্মার্ট ফোনে তা ডাউনলোড করা যাবে। ১৬ বছর বয়সী থেকে যে কেউ অ্যাপটি ডাউন লোড করতে পারবে।

স্কটল্যান্ড এবং নর্দার্ন আয়ারল্যান্ডে তাদের নিজস্ব কন্টাক্ট ট্রেইসিং অ্যাপ রয়েছে। স্কটল্যান্ডে এক সপ্তাহের ভেতরে প্রায় মিলিয়ন মানুষ এই অ্যাপ ডাউনলোড করেন। ইংল্যান্ড এবং ওয়েলসেও নতুন অ্যাপ ডাউন লোডের সংখ্যা দিনের ভেতরেই মিলিয়ন ছাড়িয়ে গেছে।

Advertisement