ইউকের সাপোর্ট গেই ম্যারিজ মামলায় সুপ্রিম কোর্টে বেকারীর মালিকের জয়

কেইকের উপর সাপোর্ট গেই ম্যারিজ লিখতে না চাওয়ায় ৩৬ পাউন্ডের কেইকের মামলায় খরচ হয়েছে ৫শ হাজার পাউন্ড

সমকামী বিয়ে সমর্থন করে একটি কেইক বানানোকে কেন্দ্র কোরে নর্দার্ন আয়ারল্যান্ডের একটি বেকারীর পক্ষে রায় দিয়েছে ইউকের সুপ্রিম কোর্ট। সাপোর্ট গ্যাই ম্যারেজ – এই স্লোগান লেখা একটি কেইক বানাতে অস্বীকৃতি জানানোয় বেকারির বিরুদ্ধে বৈষম্যমূলক আচরনের অভিযোগ এনে ২০১৪ সালে মামলা দায়ের করেছিলেন বেকারির নিয়মিত কাস্টমার এবং গেই-রাইটস এক্সিভিস্ট গ্যারেথ লি।

গ্যারেথ লি

তার অভিযোগ সেক্সুয়াল অরিয়েন্টেশন এবং রাজনৈতিক বিশ্বাস থেকেই/ বেকারীর মালিক গেই সমাজের সঙ্গে বৈষম্যমূলক আচরণ করছেন।

স্ত্রীর সঙ্গে বেকারির মালিক

যদিও বেকারীর মালিক প্রথম থেকেই দাবী করে আসছিলেন/ নিজের ধর্মীয় মূল্যবোধ থেকেই তিনি/ কেইকের উপর/ সাপোর্ট গেই ম্যারেজ স্লোগান/ লিখতে অপরাগতা জানিয়েছিলেন। বুধবার সুপ্রিম কোর্টের পাঁচজন বিচারক সর্বসম্মতভাবে বেকারী মালিকের পক্ষে এই মামলার রায় দেন। এই মামলায় ২০১৫ সালের মে মাসে বেলফাস্ট আদালতে প্রাথমিক রায়ে গেই-রাইটস ক্যাম্পেইনারের পক্ষে ছিল। পরবর্তীতে ২০১৬ অক্টোবরে এই রায়ের বিরুদ্ধে আপিলেও হারেন বেকারীর মালিক। সর্বশেষ সুপ্রিম কোর্টের রায়ে জয়ী হন বেকারীর মালিক।

যে কেইক বানানোকে কেন্দ্র এই মামলা/ সেই কেইকের মূল্য ছিল মাত্র ৩৬ পাউন্ড। আর মামলায় উভয় পক্ষের খরচ হয়েছে প্রায় ৫শ হাজার পাউন্ড।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Advertisement