এন্টি সেমিটিজম নিয়ে ব্রিটিশ লেবার পার্টির শীর্ষ নেতৃত্বে দ্বন্দ্ব

ব্রিটবাংলা ডেস্ক : দলের ভেতরে এন্টি সেমিটিজম প্রতিরোধে ব্যর্থতার বিষয়টি নিয়ে এবার লেবার পার্টির ডেপুটি লিডার টম ওয়াটসন এবং সেক্রেটারী জেনারেল জেনি ফর্মবির মধ্যে দ্বন্দ্ব প্রকাশ্যে রূপ নিয়েছে।
ডেপুটি লিডার টম ওয়াটসন দলের সব এমপি ও লর্ড সদস্যদের ইমেইলে জানিয়েছেন, লেবার পার্টির ভেতরে সব এন্টি সেমিটিজমের অভিযোগ তিনি নিজে হ্যান্ডল করবেন এবং মনিটর করবেন। এন্টি সেমিটিজমের কোনো অভিযোগ এলে সরাসরি তাকে অবহিত করার জন্যে দলীয় এমপি ও লর্ড সদস্যদের ইমেইলের মাধ্যমে জানিয়েছেন ডেপুটি লিডার।

ব্রিটেনের অন্যান্য সংবাদ

https://britbangla24.com/news/72382

https://britbangla24.com/news/72250

https://britbangla24.com/news/72473

https://britbangla24.com/news/72473

গত মাসে দলের ৯ জন এমপি লেবার পার্টি ত্যাগ করেন। তাদের লেবার ত্যাগের অন্যতম একটি কারণ ছিল দলের ভেতরে এন্টি সেমিটিজম প্রতিরোধে দলীয় ব্যর্থতার অভিযোগ। মূলত এরপরই ডেপুটি লিডার টম ওয়াটসন এতে হস্তক্ষেপ করেন।
তবে এন্টিসেমিটিজম নিয়ন্ত্রণ বা প্রতিরোধে ডেপুটি লিডারের এই হস্তক্ষেপকে সহজে মেনে নিতে পারেননি দলের জেনারেল সেক্রেটারী জেনি ফর্মবি। তিনি ডেপুটি লিডারের এই পদক্ষেপকে সম্পূর্ন রূপে অপ্রত্যাশিত বলে মন্তব্য করেছেন। এর মাধ্যমে দলের ভেতরে এন্টি সেমিটিজম প্রতিরোধের চলমান নীতি বা সিস্টেমকে ডেপুটি লিডার টম ওয়াটসন অবমূল্যায়ন করেছেন এবং দলীয় সিস্টেমের বাইরে গিয়ে তিনি নিজে একটি বিকল্প সিস্টেম দাঁড় করাতে চাইছেন বলেও অভিযোগ করেছেন লেবারের সেক্রেটারী জেনারেল।
যদিও এর জবাবে লেবারের ডেপুটি লিডার টম ওয়াটসন বলেছেন, এন্টিসেমিটিজম প্রতিরোধে অস্বচ্ছতা এবং বিলম্বের কারণে বরং দলের অনেক ক্ষতি হয়ে যাচ্ছে। এ কারণেই তিনি নিজে হস্তক্ষেপ করতে বাধ্য হয়েছেন।
উল্লেখ্য গত প্রায় দুই বছরের বেশি সময় ধরে এন্টি সেমিটিজম বিতর্ক আটার মতো লেগে আছে লেবার পার্টির পেছনে। এন্টি সেমিটিজমের অভিযোগে অনেক নেতাকর্মী, কাউন্সিলর, এমপি দল থেকে বহিস্কার হয়েছেন। সর্বশেস গত মাসে ৯ জন এমপি লেবারপার্টি ত্যাগ করেছেন। তাদের দল ত্যাগের অন্যতম একটি কারণ ছিল দলের ভেতরে এন্টি সেমিটিজম প্রতিরোধে নেতৃত্বের ব্যর্থতার বিষয়টি। দল ত্যাগি এই ৯ এমপির মধ্যে ৮জন মিলে গড়েছেন ইন্ডিপেনডেন্ট গ্রুপ। তাদের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন কনজারভেটিভ ত্যাগ করে আসা আরো তিন এমপি।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Advertisement