করোনা ভাইরাস পাওয়া না গেলেও বাংলাদেশিকে ফেরত ভারতের

ব্রিট বাংলা ডেস্ক :: করোনা ভাইরাসের কোনো লক্ষণ পাওয়া না গেলেও এক বাংলাদেশি নাগরিককে ভারতে ঢুকতে দেওয়া হয়নি। ভিসা থাকা সত্ত্বেও তাকে ফিরিয়ে দেওয়া হয়েছে।

করোনা ভাইরাস আতঙ্কে সোমবার সকাল ৯টার দিকে আগরতলা ইমিগ্রেশন থেকে তাকে ফিরিয়ে দেওয়া হয়।

এই লোকটির নাম শওকত আহমেদ। ব্যবসায়িক কাজে গত নভেম্বর মাসের শেষ দিকে চীন ভ্রমণ করেছিলেন তিনি। তার পাসপোর্ট নাম্বার (ইঔ০৯২৮০৪৯) ও ভারতীয় ভিসা নম্বর (ঠখ৫৩২৫০২)। শওকত আহমেদ ফেনী সদর উপজেলার সাহিবপুর গ্রামের সৈয়দ আহমেদের ছেলে। তিনি চট্টগ্রামে মোটর যন্ত্রাংশের ব্যবসা করেন। প্রয়োজনীয় স্বাস্থ্য পরীক্ষায় করোনা ভাইরাসের কোনো লক্ষণ পাওয়া যায়নি তার।

শওকত আহমেদ জানান, এক সপ্তাহ ভ্রমণ শেষে গত নভেম্বর মাসের শেষ দিকে চীন থেকে দেশে ফেরেন তিনি। কেনাকাটা ও বেড়ানোর জন্য সোমবার সকালে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া আন্তর্জাতিক ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট দিয়ে ভারতে প্রবেশ করেন। এরপর পাসপোর্টে চীনের ভিসা দেখতে পেয়ে আগরতলা ইমিগ্রেশনে তাকে আটকে দেওয়া হয়।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া স্থলবন্দর ইমিগ্রেশনের কর্মকর্তা আবদুল হামিদ জানান, সোমবার শওকত আহমেদকে যাবতীয় পরীক্ষা শেষে ভারত ভ্রমণের অনুমতি দেওয়া হয়। কিন্তু তার শরীরে করোনা ভাইরাস রয়েছে এমন কোন পরীক্ষা বা প্রমাণ ছাড়াই আগরতলা ইমিগ্রেশন তাকে ফেরত পাঠিয়েছে। বিষয়টি আমরা ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করেছি।

উল্লেখ্য, স্বাস্থ্য অধিদফতরের নির্দেশনা অনুযায়ী সারা দেশের ন্যায় ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া স্থলবন্দরেও করোনা ভাইরাসবাহী শনাক্তে পরীক্ষা কার্যক্রম শুরু করেছে সিভিল সার্জন অফিস।

Advertisement