ঘুরে দাঁড়াতে শুরু করেছে ব্রিটিশ অর্থনীতি

মো: রেজাউল করিম মৃধা ॥ করোনা মহামারিতে গত জুলাই মাসে কিছুটা সচল হয়েছে ব্রিটিশ অর্থনীতির চাকা। অফিস ফর ন্যাশনাল স্ট্যাটাস্টিক( ONS) এর তথ্য মতে ব্রিটেনের অর্থনীতির প্রবৃদ্ধি ৬ দশমিক ৬ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে গত জুলাই মাসে।

দীর্ঘ লকডাউন শেষে জুলাই থেকে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, পাব, রেস্টুরেন্ট, সেলুন খুলে দেওয়ায় তা অর্থনীতির চাকায় কিছুটা শক্তি যুগিয়েছে।

তবে ব্রিটিশ অর্থনীতি এখনো গত ফেব্রুয়ারীর চাইতে প্রায় ১২ শতাংশ সংকুচিত। আর জুলাইয়ের প্রবৃদ্ধির জুনের প্রবৃদ্ধির চাইতেও কম। করোনা মহামারিতেও জুনের প্রবৃদ্ধি ছিল ৮ দশমিক ৭ শতাংশ।

ইউকের ক্যাপিটাল ইকোনমিক্সের ইকোনোমিস্ট টমাস পাগ বলেন, “রেস্টুরেন্ট, পাব, হেয়ার ড্রেসার, শপিংমল গুলি হচ্ছে ব্রিটেনের অর্থনীতির মূল চাকা। এই গুলি অপেন থাকলে ব্রিটেনের অর্থনীতি সব সময় সচল থাকবে”।

জুলাই থেকে সব ব্যাবসা প্রতিস্ঠান খোলার পর অর্থনীতি চাকা সচল হতে থাকে তবে আগস্ট মাসে
“ইট আউট টু হেল্প আউট” প্রজেক্টের ফলে ব্রিটেনের অর্থনীতি পুরোপুরি ভাবে ঘুরে দাঁডায়।

করোনাভাইরস মহামারি দূর্যোগ মোকাবেলা করতে ব্রিটিশ সরকারের মত অর্থনৈতিক সহযোগিতা পৃথিবীর আর কোন দেশের সরকার করে নাই। জনসাধারন , ব্যাবসায়ী, শ্রমিক কর্মচারী সবার জন্য বহু ধরনের সহযোগিতা ও অর্থ সহযোগিতা দিয়েছে সরকার।

ব্রিটিশ সরকার চাচ্ছে যে কোন কিছুর বিনিময় হোক অর্থনীতি কে স্বচল করতে। এ জন্য সবার সহযোগিতা প্রয়োজন। যদিও ব্রেক্সিট বাস্তবায়ন হলে কিছুটা ব্যাঘাত ঘটলেও আবার স্বচল হবে বৃটেনের অর্থনীতির চাকা।

Advertisement