ঝড়ে উড়ে গেল ইস্তানবুল

ব্রিট বাংলা ডেস্ক :: টর্নেডোর জেরে বিপর্যস্ত ইস্তানবুল। রয়টার্স সূত্রে খবর, ইস্তানবুলের পশ্চিম সীমান্ত প্রদেশে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। রাস্তার ওপর থাকা প্রায় প্রতিটি গাড়িকে উড়িয়ে নিয়ে গিয়ে ফেলেছে যত্রতত্র। শুধু যানবাহনই নয়, ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে এখানকার বহু ঘরবাড়ি। বাড়িগুলির ভিত মজবুত বলেই সেগুলি যথাস্থানে রয়েছে, নচেত সেগুলিও হয়তো উড়ে যেত। টর্নেডোয় ১৬ জন আহত হয়েছেন। তাদের নিকটবর্তী হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। উপকূলবর্তী এলাকায় প্রচুর ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

বহু নৌকাকে উড়িয়ে নিয়ে গিয়ে কোথায় ফেলেছে তার হদিশ করা যাচ্ছে না। এছাড়াও পথের ধারে থাকা বহু গাছ উপড়ে গেছে। ফলে এলাকার ভারসাম্য বিঘ্নিত হয়েছে বলে মনে করছেন সেখানকার পরিবেশবিদরা। স্থানীয় এক ব্যক্তি জানিয়েছেন, মাত্র ২০ সেকেন্ডের ঝড়ে সমস্ত কিছু তছনছ করে দিয়েছে। বহু বাড়ির চাল উড়ে গেছে, গাড়িগুলিকেও হাওয়ায় ভাসতে দেখা গেছে। সময়টা সামান্য হলেও তার প্রভাব ছিল অনেক বেশি।

লাতিন আমেরিকায় কিছুদিন আগে এই ধরনের একটি টর্নেডো হয়েছিল। সেখানকার অবস্থা মনে করিয়ে দিয়েছে এই ঝড়। একটি স্থানে রাস্তা মেরামতির কাজ চলছিল, সেখানে থাকা একটি ক্রেন উড়ে গিয়ে পড়ে একটি বাড়িতে। ফলে সেখানকার বাসিন্দারা আহত হন। তবে দ্রুত উদ্ধারকার্য চলার ফলে পরিস্থিতি সামাল দেওয়া হয়েছে। ইস্তানবুল আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, এই ধরনের একটি ঘটনার পর এলাকায় প্রচুর বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। তাই সেদিকে বাড়তি সতর্ক থাকতে হবে। সরকারের কাজের প্রশংসা করেছে সেখানকার বাসিন্দারা। তারা জানিয়েছে, যে গতিতে উদ্ধারকাজ করা হয়েছে তা তারিফের যোগ্য।

Advertisement