টাকার-টেক্টরের লড়াকু হাফ-সেঞ্চুরিতে লিড নিলো আয়ারল্যান্ড

দুই ব্যাটার লরকান টাকার ও হ্যারি টেক্টরের জোড়া হাফ-সেঞ্চুরিতে বাংলাদেশের বিপক্ষে ঢাকা টেস্টে লিড নিয়েছে সফরকারী আয়ারল্যান্ড। তৃতীয় দিনের চা-বিরতি পর্যন্ত ৪ উইকেট হাতে নিয়ে ৪৪ রানে এগিয়ে আয়ারল্যান্ড।
প্রথম ইনিংসে ১৫৫ রানে পিছিয়ে থেকে তৃতীয় দিনের চা-বিরতি পর্যন্ত ৬ উইকেটে ১৯৯ রান করেছে আয়ারল্যান্ড।
প্রথম ইনিংসে আয়ারল্যান্ডের ২১৪ রানের জবাবে ৩৬৯ রান করেছিলো বাংলাদেশ। পিছিয়ে থেকে দ্বিতীয় দিন শেষে ৪ উইকেটে ২৭ রান করেছিলো আয়ারল্যান্ড। ৬ উইকেট হাতে নিয়ে ১২৮ রানে পিছিয়ে ছিলো আইরিশরা।
মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে তৃতীয় দিন শুরু থেকেই সাবধানে খেলতে শুরু করে আগের অপরাজিত আয়ারল্যান্ডের দুই ব্যাটার হ্যারি টেক্টর ও পিটার মুর।দিনের প্রথম ১৫ ওভার বিপদ ছাড়াই কাটিয়ে দেন টেক্টর-মুর। পরের ওভারের প্রথম বলে বাংলাদেশকে প্রথম সাফল্য এনে দেন বাঁ-হাতি পেসার শরিফুল ইসলাম। উইকেটের পেছনে ক্যাচ দিয়ে ১৬ রানে আউট হন মুর। আগের দিন দলীয় ১৩ রানে চতুর্থ উইকেট পতনের পর ৩৮ রানের জুটিতে ১৫৪ বল খেলেছেন টেক্টর-মুর।মুরের বিদায়ে উইকেটে সেট ব্যাটার টেক্টরের সঙ্গী হন লরকান টাকার। বাংলাদেশ বোলারদের সামনে প্রতিরোধ গড়ে তুলেন তারা। প্রথম ইনিংসের মত এবারও হাফ-সেঞ্চুরি তুলেন নেন অভিষেক টেস্ট খেলতে নামা টেক্টর। অভিষেক টেস্টের দুই ইনিংসেই অর্ধশতক করা প্রথম আইরিশ ব্যাটার টেক্টর।অবশ্য হাফ-সেঞ্চুরির পর খুব বেশি এগোতে পারেননি টেক্টর। স্পিনার তাইজুলের বলে লেগ বিফোর আউট হন তিনি। রিভিউ নিয়েও নিজের উইকেট বাঁচাতে পারেননি টেক্টর। ১৫৯ বলে ৫৬ রানের লড়াকু ইনিংস খেলেন তিনি। ৮ রান নিয়ে দিন শুরু করা টেক্টরের ইনিংসে ৭টি চার ও ১টি ছক্কা ছিলো। ষষ্ঠ উইকেটে টেক্টর-টাকার ১৪৫ বলে ৭২ রানের জুটি গড়েন।টেক্টর ফেরার পর অ্যান্ডি ম্যাকব্রিনকে নিয়ে লড়াই শুরু করেন টাকার। নিজের অভিষেক টেস্টের দ্বিতীয় ইনিংসে ৯২ বল খেলে প্রথম হাফ-সেঞ্চুরি করেন টাকার। হাফ-সেঞ্চুরি পরই ৬৭তম ওভারে বাউন্ডারির সহায়তায় আয়ারল্যান্ডকে লিড এনে দেন টাকার।সপ্তম উইকেটে ১০৭ বলে অবিচ্ছিন্ন ৭৬ রান তুলে চা-বিরতিতে গিয়েছেন টাকার-ম্যাকব্রিন। ম্যাকব্রিন ২৭ ও টাকার ৮৯ রানে অপরাজিত আছেন। বাংলাদেশের তাইজুল ইসলাম ৩টি, অধিনায়ক সাকিব আল হাসান ২টি ও শরিফুল ১টি উইকেট নেন।

Advertisement