ঢাকায় নেমে কোয়ারেন্টাইনে নিউজিল্যান্ড দল

বাংলাদেশের বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলতে ঢাকায় পৌঁছেছে নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট দল। ২০১৩ সালের পর কিউই দলের এটাই প্রথম বাংলাশে সফর। ইমিগ্রেশন শেষে হোটেলে যায় নিউজিল্যান্ডের ক্রিকেটাররা। সেখানে জৈব-সুরক্ষা নিয়ম অনুসারে আগামী তিনদিন কোয়ারেন্টাইনে থাকবে তারা।সোমবার অকল্যান্ড থেকে রওনা দেয়ার পর মঙ্গলবার দুপুরে বাংলাদেশে পা রাখে কিউইরা।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে এটিই বাংলাদেশের সর্বশেষ সিরিজ। নিউজিল্যান্ড স্কোয়াডে অবশ্য এমন কেউ নেই যারা দেশের হয়ে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খেলবে। দলটি নেতৃত্বে আছেন টম লাথাম। সর্বশেষ ২০১৬ সালে টি-টোয়েন্টি খেলেছিলেন লাথাম। দলে থাকা তিনজনের এখনো নিউজিল্যান্ডের হয়ে আন্তর্জাকি অভিষেকই হয়নি।১৩ জনের স্কোয়াড নিয়ে ঢাকায় এসেছে নিউজিল্যান্ড। ব্যাটসম্যান ফিন অ্যালেন এবং অলরাউন্ডার কলিন ডি গ্র্যান্ডহোম আগেভাগেই ঢাকায় আসেন। ইংল্যান্ডে দ্য হান্ড্রেড ক্রিকেট খেলে ২০ আগস্ট তারা ঢাকায় আসেন।
এরপর তারা হোটেলে কোয়ারেন্টাইনে ছিলেন।এর আগে ১৭ আগস্ট নিউজিল্যান্ড ক্রিকেটের তিন সদস্যের পরিদর্শক দল ঢাকা আসেন। তারা এখনও বাংলাদেশে আছেন এবং সিরিজ শেষ হবার পর দলের সাথে দেশ ছাড়বে।২০১৩ সালের পর নিউজিল্যান্ডের প্রথম বাংলাদেশ সফর হলেও এরমধ্যেই তিনবার নিউজিল্যান্ড সফর করেছে টাইগাররা। মূলত সীমিত ওভারের সিরিজই খেলেছে তারা। এ বছরই তিনটি করে ওয়ানডে ও তিনটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছে তারা।

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে এখন পর্যন্ত যে কয়টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছে বাংলাদেশ, সবগুলোই হেরেছে। সদ্য অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ৪-১ ব্যবধানে জয়ে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজে জয়ের ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী টাইগাররা।দেশের মাটিতে সর্বশেষ দুই সফরে ওয়ানডে সিরিজে নিউজিল্যান্ডকে হোয়াইটওয়াশ করেছিলো বাংলাদেশ। ২০১০ সালে চার ম্যাচের ও ২০১৩ সালে তিন ম্যাচের সিরিজে কিউইদের হোয়াইটওয়াশ করে টাইগাররা।এবারের বাংলাদেশ সফরে ২৯ আগস্ট একটি প্রস্তুতিমূলক ম্যাচ খেলার কথা ছিলো নিউজিল্যান্ডের। কিন্তু সেটি বাতিল হয়। কারণ জৈ-সুরক্ষা বলয়ের নিয়মে ঢাকার বাইরে ম্যাচ খেলতে রাজি নয় তারা। এর মধ্যে জৈব-সুরক্ষা বলয়ে প্রবেশ করেছে বাংলাদেশ দলও।আগামী ১ সেপ্টেম্বর থেকে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ শুরু হবে। ম্যাচ চারটি হবে ৩, ৫, ৮ ও ১০ সেপ্টেম্বর। সিরিজের সবগুলো ম্যাচ মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বিকেল ৪টায় শুরু হবে। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজের ম্যাচগুলো সন্ধ্যা ৬টায় শুরু হয়েছিলো। কিন্তু এবার নিউজিল্যান্ড দর্শকদের স্বার্থে ম্যাচের সময় এগিয়ে আনা হয়েছে।

Advertisement