ব্রিট বাংলা ডেস্ক :: আপনি কি মানসিক আবসাদে ভুগছেন? সারাদিনে আপনি ৫ ঘণ্টা ধরে সোশ্যাল মিডিয়াতে মগ্ন থাকেন কি? এটি আপনার মানসিক অবসাদের কারণ হতে পারে। সমীক্ষা থেকে উঠে এসেছে এমনই তথ্য। মিররে প্রকাশিত একটি তথ্য অনুসারে দেখা গিয়েছে ইনস্টাগ্রাম, স্ন্যাপচ্যাট, ফেসবুক, হোয়াটসঅ্যাপ, টুইটার থেকে শুরু করে বর্তমানে প্রায় প্রতিটি মানুষের জীবনের সঙ্গেই সোশ্যাল মিডিয়া যুক্ত।

তবে নতুন একটি সমীক্ষা থেকে দেখা গেছে, সারাদিনে যদি ৫ ঘণ্টা ধরে সামাজিক মাধ্যমের সঙ্গে যুক্ত থাকেন তাহলে মানসিক অবসাদ আপনার বাড়বে। আরকানসাস বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা এই তথ্য ই দিয়েছেন। তারা বলছেন, এর ফলে মাত্র ছমাসের মধ্যে আপনি মানসিক অবসাদগ্রস্ত হতে পারেন।

ডক্টর ব্রায়ান প্রিমাক এবিষয়ে বলেছেন, মানুষের মন নানা কারণেই অবসাদগ্রস্ত হতে পারে। তবে সোশ্যাল মিডিয়ার প্রভাব বর্তমানে অনেকটাই বেশি।

অন্যের উন্নতি ডেকে আনতে পারে আপনার সর্বনাশ। এক হাজার প্রাপ্তবয়স্ক মানুষের ওপর এই সমীক্ষা চালানো হয়েছে। সেখান থেকেই উঠে এসেছে এই তথ্যে।

সমীক্ষা থেকে জানা গেছে, যারা দিনে যতবেশি সোশ্যাল মিডিয়ার ব্যবহার করেন, তারা তত বেশি মানসিক অবসাদের শিকার হন। শুধু সময়ের অপচয়ই নয়, মনের গভীরে প্রভাব ফেলে এই সোশ্যাল মিডিয়া। দিনের অনেকটা সময় সোশ্যাল মিডিয়াতে কাটানোর বদলে যদি ব্যক্তি তার নিজের উন্নতিতে কাজ করেন তাহলে তিনি জীবনে অনেক বেশি উন্নতি লাভ করবেন। তবে সোশ্যাল মিডিয়ার যে শুধু খারাপ দিকই রয়েছে তা নয়, আধুনিক জীবনকে অন্য  একটি স্তরে নিয়ে গেছে এই মাধ্যমগুলি। তবে তাকে সঠিকভাবে ব্যবহার করতে হবে। করোনার বিষয়ে মানুষকে সচেতন করার অন্যতম হাতিয়ার ছিল কিন্তু এই সামাজিক মাধ্যমই। তাই গবেষকদের মতে, প্রতিটি মানুষের উচিত সোশ্যাল মিডিয়াকে তার শক্তি করা, তার শিকার হয়ে যাওয়া নয়।

Advertisement