নভেম্বরের প্রথম সপ্তাহে দেশে ফিরছেন বেগম জিয়া

আ স ম মাসুম : চিকিৎসার জন্য লন্ডনে অবস্থানরত বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া দেশে ফিরছেন নভেম্বর মাসের ৩ বা ৪ তারিখ। যুক্তরাজ্য বিএনপির একাধিক শীর্ষ নেতা এ বিষয়ে নিশ্চিত করেছেন। নাম প্রকাশে না করার শর্তে একজন বিএনপি নেতা জানান, এমিরেটস এর একটি ফ্লাইটে তিনি বাংলাদেশ যাবেন। যাওয়ার পথে বেগম জিয়া সংযুক্ত আরব আমিরাতে একটি যাত্রা বিরতি নিবেন। এসময় সংযুক্ত আরব আমিরাতের বিএনপির নেতৃবৃন্দের সাথে এক সংক্ষিপ্ত বৈঠক করবেন বলেও জানা যায়। দেশে ফিরে ৭ নভেম্বর বিপ্লব ও সংহতি দিবস পালনকালে আগামী নির্বাচনী চিন্তা ভাবনার বিষয়গুলো সারা দেশের নেতাকর্মী ও দেশবাসীর কাছে তুলে ধরার পরিকল্পনাও করা হয়েছে বলে জানান যুক্তরাজ্য বিএনপির শীর্ষ এই নেতা।
গত ১৫ জুলাই চোখের চিকিতসার জন্য লন্ডনে আসেন বেগম জিয়া। তবে এই সফরে বিএনপি অনেক গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত গ্রহন করেছে বলে জানা গেছে। বিশেষ করে যে কোন মূল্যে নির্বাচনে অংশ নেয়ার বিষয়ে মা-ছেলে ঐক্যমতে পৌছেছেন। নির্বাচনকে ঘিরে আগামী ১ বছরের পরিকল্পনা করা হয়েছে। নির্বাচনের জন্য ৩০০ আসনের সম্ভাব্য প্রার্থীরও একটি তালিকা সম্পন্ন হয়েছে। এছাড়া বেগম জিয়া ব্রিটেনে বসবাসকারী বিজেপির দুজন শীর্ষ নেতার সাথে বৈঠক করেছেন বলেও জানা গেছে। আগষ্ট মাসের শেষ সপ্তাহে লন্ডনেই এই বৈঠক সম্পন্ন হয়। এর বাইরে বিভিন্ন রাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত ও প্রভাবশালী নেতাদের সাথে বৈঠকের অনেক খবর কমিউনিটিতে ঘুরলেও এসব বিষয়ে কোন খবর যুক্তরাজ্য বিএনপির নেতৃবৃন্দের কেউ জানেন না। এছাড়া বেগম জিয়া তারেক রহমানের বাসায় বসবাস করলেও বিএনপির আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক মাহিদুর রহমান, যুক্তরাজ্য বিএনপির সভাপতি এম এ মালেক ও সাধারন সম্পাদক কয়সর আহমেদ ছাড়া সিনিয়র আরো ২/৩ জন নেতা দেখা করার সুযোগ পেয়েছেন। তবে দেশে ফেরার আগে ব্রিটেন ও ইউরোপের নেতা-কর্মীদের সাথে একটি সমাবেশ করার পরিকল্পনা গ্রহন করা হয়েছে বলেও জানা গেছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Advertisement