ফ্রিডম অব দ্যা সিটি অব লন্ডন সম্মাননা পেয়েছেন সাবরিনা হুসাইন (ভিডিও)

বৃটিশ বাংলাদেশী কমিউনিটিতে বিশেষ অবদান রাখায় এনটিভি ইউরোপের সিইও এবং বিশিষ্ট ব্যবসায়ী সাবরিনা হুসাইনকে ফ্রিডম অব দ্যা সিটি অব লন্ডন সম্মাননা প্রদান করা হয়েছে। গত ২৪ সেপ্টেম্বও, মঙ্গলবার লন্ডনের গিল্ড হলের চেম্বারলিন্স কোর্ট রুমে এক অনুষ্ঠানে তাঁকে এ সম্মাননা প্রদান করা হয়। এ সময় বাংলাদেশে নিযুক্ত সাবেক ব্রিটিশ হাইকমিশনার আনোয়ার চৌধুরী, ব্রিটিশ বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্সের সাবেক প্রেসিডেন্ট শাহগীর বখত ফারুক, ব্যবসায়ী ওয়াজিদ হাসান সেলিম এবং ইয়াওর খানসহ কমিউনিটির বিভিন্ন সেক্টরের বিশিষ্ট ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন। দি ফ্রিডম অব সিটি অব লন্ডন সম্মাননা পাবার পর সাবরিনা হোসাইন জানান, এ দিনটি তার জীবনের অনত্যম সেরা একটি দিন। তিনি বলেন, এ সম্মাননা শুধু তার নয় এ সম্মান গোটা বাংলাদেশীদের।
সাবরিনা হোসাইন আরও বলেন, কাজ করার ক্ষেত্রে যেকোন ধরনের সম্মান একটি বড় ধরনের অনুপ্রেরনা হয়ে কাজ করে। আগামী দিনে আরও ভালো ভালো প্রজেক্ট করতে দি ফ্রিডম অব সিটি অব লন্ডন সম্মাননা তার জন্য একটি অনেক বড় টনিক হিসেবে কাজ করবে বলে মত দেন তিনি।

ধারনা করা হয়, ১২৩৭ সাল থেকে দি ফ্রিডম অব সিটি অব লন্ডন সম্মাননা চালু করা হয়েছিল। স¦ স্ব ক্ষেত্রে সফলতম ব্যক্তিত্বরা এ সম্মননা লাভ করেছে। এছারাও বিভিন্ন সময়ে দি অনারারী ফ্রিডম অব সিটি অব লন্ডন সম্মাননা লাভ করেছেন সব নামি দামী ব্যক্তিত্বরা এদের মধ্যে অন্যতম ডিউক অফ ক্যামব্রিজ প্রিন্স জর্জ ১৮৫৭ সালে এ সম্মান লাভ করেন। এছারাও সাউথ আফ্রিকার সাবেক প্রেসিডেন্ট নেলসেন ম্যান্ডেলা, বৃটেনের সাবেক প্রধানমন্ত্রী উইনস্টন চার্চিল, বেনজামিন ডিস্রাইয়েলি, বৃটেনের রাজপরিবারের সদস্য প্রিন্সেস ডায়ানা, ফেøারেন্স নাইটেঙ্ঘেল, সাবেক জার্মান চ্যান্সেলর হেলমট খল সহ অনেকে। এছারাও প্রথম নারী হিসে্েব ১৮৭২ সালে অনারারী ফ্রিডম লাভ করেন প্রথম ব্যারোনেস এঞ্জেলা বার্ডেট কঁটস।

অপরদিকে বর্তমানে যুক্তরাজ্যর পার্লামেন্টের স্পিকার জন বারকো, চার্লস টানক এমপি, ইংলিশ ক্রিকেটার আলিস্টার কুক, ইংলিশ এক্টর এডি রেডমেইন, ডেমিয়েন লুইস, স্টিফেন ফ্রাই, ইয়ান মেককেলেন, মাইক্রোসফটের প্রতিষ্টাতা বিল গেঁট সহ অনেক
বৃটিশ কুটনৈতিক রাজনৈতিক, সংগীতশিল্পী, অভিনেতা সহ বিভিন্ন ব্যক্তিত্বরা বিভিন্ন সময়ে দি ফ্রিডম অব সিটি অব লন্ডন সম্মাননা লাভ করেছেন।

এদিকে দীর্ঘদিন থেকে বৃটেনের বাংলাদেশী কমিউনিটির সাথে স্বখ্যতা গড়ে তুলেছেন সিলেটের গর্ব সাবরিনা হুসাইন। এনটিভি ইউরোপের মাধ্যমে বৃটিশ বাংলাদেশী কমিউনিটিকে সেবা দেওয়ার পাশাপাশি ভারত, পাকিস্তানী সহ অন্যান্য কমিউনিটিতেও পদচারনা রয়েছে নারী এই উদ্যোক্তার। ২০১২ সাল থেকে লন্ডনে এনটিভি ইউরোপের কার্যক্রম শুরু হওয়ার পর থেকেই তিনি সামাজিক, সাংস্কৃতিক, রাজনৈতিক সহ বিভিন্ন সংগঠনকে সহযোগিতা করার পাশাপাশি চ্যারিটি সংগঠনগুলোকে সমর্থন করে আসছেন এই নারী উদ্যোক্তা। শুধু তাই নয় কমিউনিটির মেধাবী নারীদেরকে সামনে নিয়ে আসতে নানা সময়ে নিয়েছেন বিভিন্ন উদ্যোগ। এছাড়াও বৃটেনে বসবাসরত সাউথ এশিয়ার সফলতম ব্যবসায়ীদের সম্মাননা জানাতে সাবরিনা হুসাইন আয়োজন করেন বিজনেস ফ্রেন্ডস অফ এনটিভি রিকোগনিশন সিরিমিনি। পাশাপাশি লন্ডনসহ ইউরোপের বিভিন্ন শহরে তারই উদ্যোগে গত ৫ বছর ধরে মাঠে গড়িয়েছে এনটিভি কমিউনিটি কাপ ক্রিকেট টূর্নামেন্ট। নানা সময়ে ব্যতিক্রমী সকল অনুষ্ঠান আয়োজন করে সকল মহল থেকেই প্রশংসিত হয়েছেন মহিয়সী এই নারী। আগামী দিনগুলোতে সাবরিনা হুসাইন বৃটেনের বাংলাদেশী কমিউনিটিকে আরও অনন্য উচ্চতায় নিয়ে যাবেন এমনটাই প্রত্যাশা করছেন সকলে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Advertisement