বেকটন ইসলামিক এসোসিয়েশনের ঈদপূণর্মিলনী: মসজিদ প্রতিষ্ঠায় কাউন্সিলের সহযোগিতা কামনা

প্রতি বছরের ন্যায় এবারো নিউহাম কাউন্সিলের বেকটন এলাকায় বসবাসকারী মুসলিম সম্প্রদায়ের বাসিন্দাদের নিয়ে গঠিত বেকটন ইসলামিক এসোসিয়েশনের উদ্যোগে ঈদ পুণর্মিলনী অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছে ২২ জুন শনিবার স্থানীয় একটি হলে।

এতে বেকটন এলাকায় বসবাসরত বাংলাদেশী, স্থানীয় জনপ্রতিনিধিগন, মুসলিম কমিউনিটি নেতৃবৃন্দ ও শিশু কিশোররা অংশনেয়। এসময় মুসলিম কমিউনিটির নেতৃবৃন্দ ঘরে তৈরী পিঠা, সন্দেশসহ নানান পদের বাহারী ঈদ ফুড আগাত অতিথিদের মধ্যে পরিবেশন করেন।
সংগঠনের সভাপতি ফরহাদ মিয়ার সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মাহবুব আহমদ সায়েমের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন স্থানীয় এমপি স্টেপেন টিমস, কাউন্সিলার আয়শা চৌধুরী, কাউন্সিলার লাকমিনি শাহ, কাউন্সিলার অ্যান স্টার, কাউন্সিরার টনি উইলসন, কাউন্সিলার নিলুফা জাহান, কাউন্সিলার জেমস আসির, গ্রেস ফ্রেডরিক, কাউন্সিলার হানিফ আব্দুল মুহিত, কাউন্সিলার আয়শা সিদ্দিক, কমিউনিটি নেতা হাসনাত আহমদ চুন্নু, নূরুল হক লালা মিয়া, আশিক চৌধুরী, মুজিবুর রহমান, ইকবাল এম হোসেন, শফিউল আলম বাবু সহ স্থানীয় বাসিন্দারা।
সভায় বক্তারা বলেন, পূর্ব লন্ডনের নিউহাম কাউন্সিলের বেকটন এলাকায় প্রায় ৭ হাজার মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষ বসবাস করলেও নেই কোন মসজিদ কিংবা ইসলামিক সেন্টার। দীর্ঘ ২৫ বছর যাবত চেস্টা করেও নানান জটিলতায় প্রতিষ্ঠা করা যাচ্ছে না মসজিদ। এলাকাবাসী বলছেন, মসজিদে গিয়ে তারা নিয়মিত ধর্মীয় অনুশীলন পালন করতে পারছেন না। তবে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা বলছেন এলাকাটি মাটি ভরাট করে জনবসতি গড়ে তুলা হয়েছে। আর তাই স্থানীয় সরকারসহ একাদিক বাধ্যবাধকতার কারনে এখানে কোন স্থায়ী ধর্মীয় উপসনালয় প্রতিষ্ঠা করা যাচ্ছে না। তারা বলছেন, কোন দোকান কিংবা বাসা বাড়ী ক্রয় করে ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান করা সম্ভব নয়। যদি উক্ত এলাকার মধ্যে খালি জমি পাওয়া যায় সেখানেই প্রয়োজনীয় অনুমোদন নিয়ে ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলা সম্ভব।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Advertisement