ব্রিটিশ মডেলের উপর এসিড হামলার কথা আদালতে স্বীকার করেছে আসামী : Man admits acid attack on model Resham Khan and her cousin

ব্রিটবাংলা রিপোর্ট : ব্রিটিশ মডেল রাশাম খান এবং তার কাজিনের উপর এসিড হামলার কথা স্বীকার করেছে অভিযুক্ত জন টমলিন। শুক্রবার  স্নেয়ার্সব্রোক ক্রাউন কোর্টে মডেল রাশাম খান ও তার কাজীন জামিল মুক্তারের উপর এসিড হামলা মামলার শুনানিতে এসিড হামলার কথা স্বীকার করে শ্বেতাঙ্গ ব্যক্তি জন।


গত ২১শে জুন, সকাল আনুমানিক ৯ টা ১৩ মিনিটের দিকে ইস্ট লন্ডনের বেক্টন এলাকার টোলগেইটে ২১তম জন্মদিনের পার্টিতে যাবার সময় মডেল রাশাম খান ও জামিল মুক্তার এসিড হামলার শিকার হয়েছিলেন। হামলার সময় তারা গাড়িতে একটি ট্রাফিক লাইটে অপেক্ষা করছিলেন। এ সময় গাড়ির খোলা জানালা দিয়ে তাদের উপর এসিড নিক্ষেপ করে ২৫ বছর বয়সী জন টমলিন।

ক্যানিংটাউনের বাসিন্দা জনকে শুক্রবার স্নেয়ার্সব্রোক ক্রাউন কোর্টে হাজির করা হয়। এ সময় সে তার উপর আনা ৪ অভিযোগের মধ্যে দুটি অভিযোগের দায় স্বীকার করে। আগামী ২৭ নভেম্বরে আবার তাকে কোর্টে হাজির করা হবে।

 

Man admits acid attack on model Resham Khan and her cousin

A man has admitted seriously injuring an aspiring model and her cousin after acid was thrown at them through a car window.

Resham Khan and Jameel Muhktar suffered scars on their faces and bodies after the assault on Ms Khan’s 21st birthday in Beckton, east London.

John Tomlin, of Colman Road, Canning Town appeared in the dock at Snaresbrook Crown Court on Friday with tattooed tear stains on his cheeks.

 The 25-year-old, wearing a navy tracksuit and beaded necklace, pleaded guilty to two counts of inflicting grievous bodily harm(GBH).

He pleaded not guilty to two charges of causing GBH with intent.

He is due to go on trial on November 27.

 Both victims suffered horrific face and neck injuries in the incident which took place in Tollgate Road at 9.13am on Wednesday June 21.

In the days afterwards, Ms Khan said: “I’m devastated. I keep wondering if my life will ever be the same.”

Mr Muhktar said he felt “emotionally wrecked” and “in continuous pain”.

Tomlin waved to family members in the public gallery as he left the dock

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Advertisement