যুক্তরাজ্যে শঙ্কা বাড়াচ্ছে নতুন ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট

করোনাভাইরাসের ভারতীয় নতুন ভ্যারিয়েন্ট নিয়ে ব্রিটেনে উদ্বেগ তৈরি হয়েছে। পাবলিক হেলথ ইংল্যান্ড (পিএইচই) এই ভ্যারিয়েন্টকে বি.১.৬১৭.২ নামে চিহ্নিত করেছে। দেশটির জনস্বাস্থ্য কর্মকর্তারা বলছেন যুক্তরাজ্যের অন্যান্য ভ্যারিয়েন্ট থেকে নতুন এই ভ্যারিয়েন্টই বেশি সংক্রামক। বিজ্ঞানীদের বিশ্বাস চীনের উহানে সন্ধান পাওয়া করোনার প্রথম ভ্যারিয়েন্ট থেকেও এই ভ্যারিয়েন্টটি বেশি দ্রুত ছড়াতে পারে। তবে নতুন এই ভ্যারিয়েন্ট সম্পর্কে প্রকাশ্যে কোনও মন্তব্য করেনি পিএইচই’র মুখপাত্র। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

ভাইরাস প্রতিনিয়ত নিজেকে পরিবর্তন করে নতুন ভ্যারিয়েন্ট হিসেবে আবির্ভূত হয়। এর বেশিরভাগই কোনও তাৎপর্য বহন করেনা। এমনকি কোনও কোনওটি ভাইরাসকে কম বিপজ্জনক করে দেয়। তবে কয়েকটি বেশ সংক্রামক হয়ে ওঠে এমনকি টিকার কার্যকারিতাকেও দুর্বল করে দেয়।দক্ষিণ আফ্রিকা এবং ব্রাজিলের ভ্যারিয়েন্টগুলো যুক্তরাজ্যে উদ্বেগের কারণ হয়েছে। এর সঙ্গে ভারতের নতুন ভ্যারিয়েন্টটি সেই শঙ্কা আরও বাড়াচ্ছে। ভারতের মূল ধরনটি বা বি.১.৬১৭ ভ্যারিয়েন্টটি যুক্তরাজ্যে প্রথম শনাক্ত হয় গত বছরের অক্টোবরে। এই ধরনটি তিনটি আলাদা সাব-ভ্যারিয়েন্টে পরিণত হয়েছে।বর্তমানে যুক্তরাজ্যে দ্রুত ছড়াচ্ছে বিশেষ একটি ভ্যারিয়েন্ট বা বি.১.৬১৭.২। যা অন্যান্য ভ্যারিয়েন্টগুলোর চেয়ে দ্রুত বাড়ছে। তবে এই ভ্যারিয়েন্ট বর্তমানে প্রচলিত টিকা প্রতিরোধী এমন কোনও প্রমাণ এখন পর্যন্ত পাওয়া যায়নি।ধারণা করা হচ্ছে যুক্তরাজ্য জুড়ে বি.১.৬১২.২ ভ্যারিয়েন্টের পাঁচ শতাধিক আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি শনাক্ত হয়েছে লন্ডন এবং উত্তর-পশ্চিম ইংল্যান্ডে। তবে গত ২৮ এপ্রিল পর্যন্ত দেশটিতে এই সংখ্যা ছিলো মাত্র ২০২টি। ফলে এই ভ্যারিয়েন্টটির দ্রুত বাড়ার ইঙ্গিত স্পষ্ট। বিবিসি

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Advertisement