রাশিয়ার বিরোধীদলীয় নেতাকে চায়ের সঙ্গে বিষ মিশিয়ে হত্যার চেষ্টা!

ব্রিট বাংলা ডেস্ক :: রাশিয়ার বিরোধীদলীয় নেতা আলেক্সেই নাভালনিকে চায়ের সঙ্গে বিষ মিশিয়ে হত্যাচেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। তাঁর মুখপাত্র ‌কিরা ইয়ামুশ জানিয়েছেন, অচেতন হয়ে পড়ার পর নাভালনিকে একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। মৃত্যুর সঙ্গে লড়ছেন তিনি। হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসা চলছে তাঁর।

কিরা ইয়ারমুশ বৃহস্পতিবার জানান, বিমানে সাইবেরিয়া থেকে রাজধানী মস্কো আসার পথে আলেক্সেই নাভালনি হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়লে বিমান জরুরি অবতরণ করে তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তিনি টুইটারে লিখেছেন, ‘আলেক্সেইকে বিষ প্রয়োগ করা হয়েছে। এখন তিনি আইসিইউতে রয়েছেন।’

কিরা ইয়ারমাশ আরো বলেন, ‘আমরা ধারণা করছি, চায়ের সঙ্গে কিছু মিশিয়ে তাঁর শরীরে বিষ প্রয়োগ করা হয়েছে। কারণ, সকালে তিনি শুধু চা পান ছাড়া আর কোনো খাবার খাননি। তাই এমন ধারণা যৌক্তিক।’

রাশিয়ার রাষ্ট্রায়ত্ত সংবাদ সংস্থা তাসের প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, বিষ প্রয়োগের রোগী হিসেবে এখন সাইবেরিয়ার ওমস্ক শহরের ইমারজেন্সি হাসপাতাল নং-১-এর নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে নাভালনির চিকিৎসা চলছে। হাসপাতালের প্রধান চিকিৎসকের কাছ থেকে জানা গেছে, তাঁর অবস্থা এখন আশঙ্কাজনক।

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের কঠোর সমালোচক এবং তাঁর সরকারের ঊর্ধ্বতন কর্মর্কতাদের বিরুদ্ধে দুর্নীতিবিরোধী প্রচারণার জন্য ৪৪ বছর বয়সী আলেক্স নাভালনি বেশ পরিচিত। এর আগেও তিনি এ ধরনের শারীরিক হামলার শিকার হয়েছেন বলে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে।

Advertisement