সাদ এরশাদের আসনে প্রার্থী হওয়ার ঘোষণা দিলেন জিএম কাদের

আগামী রংপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বর্তমান মেয়র মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফাকে জাতীয় পার্টির প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা দিয়েছেন দলটির চেয়ারম্যান জিএম কাদের।শনিবার (২১ আগস্ট) সন্ধ্যায় রংপুর সেন্ট্রাল রোডের জাতীয় পার্টির দলীয় কার্যালয়ে জেলা ও মহানগর জাতীয় পার্টির উদ্যোগে মতবিনিময় ও কর্মী সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ ঘোষণা দেন।বর্তমানে এ আসনে সংসদ সদস্য হিসেবে আছেন জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠাতা সাবেক রাষ্ট্রপতি প্রয়াত হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের ছেলে রাহগীর আল মাহি এরশাদ ওরফে সাদ এরশাদ। জিএম কাদের বর্তমানে লালমনিরহাট-৩ আসনের সংসদ সদস্য। মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও রংপুর মহানগর জাতীয় পার্টির সভাপতি।জাপা চেয়ারম্যান বলেন, রংপুরের মাটি ও মানুষের নেতা হিসেবে মোস্তফা। তাই আগামী রংপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মোস্তফাকে জাতীয় পার্টির প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা করলাম। এ সময় ভেদাভেদ ভুলে গিয়ে মোস্তফার জন্য কাজ করতে নেতা-কর্মীদের প্রতি আহ্বান জানান তিনি। তাঁর অনুমতি ব্যতীত কেউ প্রার্থী হলে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারি দেন তিনি।

জিএম কাদের বলেন, নির্বাচনে কারচুপি করা হলে আমরা আর বরদাশত করব না। কোন রকম ছাড় দেব না। জাতীয় পার্টি তার সর্বোচ্চ শক্তি দিয়ে ন্যায় ছিনিয়ে আনবে। আমাদের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করা হলে তা কঠিন হাতে প্রতিহত করব বলে শপথ নিলাম।এ সময় স্থানীয় নেতৃবৃন্দরা জিএম কাদেরকে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে রংপুর-৩ আসনের (সদর ও সিটি করপোরেশন) জাতীয় পার্টির প্রার্থী ঘোষণা করেন।জিএম কাদের আরে বলেন, দেশের সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনা করে দেশে মানুষ পরিবর্তন চাচ্ছে। এরশাদ সরকারের পর মানুষ মুদ্রার এপিঠ-ওপিঠ দেখেছে। তারা অচল মুদ্রা বাদ দিয়ে নতুন মুদ্রা আনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তাই দেশের মানুষের প্রত্যাশা পূরণের দায়িত্ব আমাদের। দলকে সুসংগঠিত করে সবাইকে একতাবদ্ধ থাকতে হবে, নেতৃত্ব মেনে চলতে হবে। নিজেদের মধ্যে ভ্রাতৃত্ববোধ ও বন্ধন সৃষ্টি করতে হবে। তাহলেই আমরা যে কোন প্রতিকূল পরিবেশ মোকাবিলা করতে পারব।জিএম কাদের বলেন, জাতীয় পার্টি সরকার ক্ষমতা থেকে সরে যাওয়ার পর দেশে সুশাসন নেই। সুশাসনের অভাবে মানুষ নির্যাতিত, নিষ্পেষিত হচ্ছে। আইনের শাসন ও প্রয়োগ সঠিকভাবে হচ্ছে না। তাই ন্যায় বিচার ভিত্তিক সমাজ ব্যবস্থা আমরা নিশ্চিত করতে পারছি না।

রংপুর মহানগর জাতীয় পার্টির সভাপতি ও রংপুর সিটি করপোরেশনের মেয়র মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত কর্মী সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন জাতীয় পার্টি কেন্দ্রীয় কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান ও রংপুর মহানগর জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক এসএম ইয়াসির, কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও রংপুর জেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক আলহাজ আব্দুর রাজ্জাক।এ সময় অন্যদের মধ্যে আরও বক্তব্য দেন সাবেক এমপি শাহানারা বেগম, জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় সদস্য ও রংপুর মহানগর যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক লোকমান হোসেন, কেন্দ্রীয় সদস্য ও মহানগর সাংগঠনিক সম্পাদক জাহেদুল ইসলাম, জাতীয় ছাত্র সমাজ কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক আল মামুন, জাতীয় যুব সংহতি রংপুর জেলার সভাপতি হাসানুজ্জামান নাজিম, সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম, জাতীয় যুব সংহতি রংপুর মহানগর সভাপতি শাহিন হোসেন জাকির, সাধারণ সম্পাদক শান্তি কাদেরী, জাতীয় ছাত্র সমাজ রংপুর মহানগর সভাপতি ইয়াসির আরাফাত আসিফ, জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টির রংপুর মহানগর আহ্বায়ক ফারুক হোসেন মণ্ডল, জাতীয় শ্রমিক পার্টির রংপুর জেলার সভাপতি রাজু আহমেদ ও মহানগর সভাপতি তোফাজ্জল হোসেন তোফা প্রমুখ।প্রসঙ্গত, ২০১৭ সালের ২১ ডিসেম্বর রংপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে জাতীয় পার্টির প্রার্থী হিসেবে মেয়র নির্বাচিত হন মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা।

Advertisement