সুনামগঞ্জে নৌকাডুবিতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১০

সিলেট অফিস :: সুনামগঞ্জের দিরাইয়ের কালিকোঠা হাওরে নৌকাডুবিতে ১০ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।
মৃতেরা হলো- মাছিমপুরের বাবুল মিয়ার ছেলে শামীম মিয়া, বদরুল মিয়ার ছেলে আবির মিয়া, নোয়ারচরের আফজাল মিয়ার ছেলে আসাদ, পেরুয়ার ফিরোজ মিয়ার ছেলে শহীদুল মিয়া, মাছিমপুরের জমশেদ আলীর মেয়ে শান্তা, আরজ আলীর মেয়ে তাসলিমা এবং আফজাল মিয়ার ছেলে সোহান মিয়া। তাদের বয়স ২ থেকে ৬ বছর। এ ছাড়া মাছিমপুরের আরজ আলীর স্ত্রী রুহিতুনন্নেছা (৩৫), একই এলাকার আফজাল হোসেনের স্ত্রী আজিজুন্নেসা (৩০) এবং পেরুয়ার নজিব উল্লার স্ত্রী করিমার (৭০) মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।
স্থানীয় রফিনগর ইউপি চেয়ারম্যান রেজুয়ান হোসেন খান জানান, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় একটি ইঞ্জিনচালিত ট্রলার কালিকোঠা হাওরপাড়ের পেরুয়া থেকে ৩১ জন যাত্রী নিয়ে হাওরপাড়ের মাছিমপুরে যাচ্ছিল। ঝড়ের কবলে পড়ে ট্রলারটি মাছিমপুরের কাছাকাছি এসে ডুবে যায়। এসময় সাত যাত্রী সাঁতার কেটে পাড়ে ওঠেন। এলাকাবাসী চার শিশুর মরদেহ উদ্ধার করে।
ইউপি চেয়ারম্যান রেজুয়ান হোসেন খান জানান, রাতে শিশু শামীম, আবির, সোহান ও শহীদুলের মরদেহ গ্রামবাসী উদ্ধার করে। ভোরে পুলিশসহ এলাকাবাসী ইঞ্জিনচালিত নৌকা নিয়ে খুঁজে আরও পাঁচজনের মরদেহ উদ্ধার করে।
দিরাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কেএম নজরুল ইসলাম জানান, বুধবার দুপুর পর্যন্ত একজন নিখোঁজ ছিল। তার লাশ উদ্ধার হয়েছে। ফলে উদ্ধার অভিযান শেষ হলো।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Advertisement