১৪ আগস্ট বার্মিংহ্যামে বাংলাদেশ ক্রীড়া পরিষদ ইউকের দ্বিতীয় ক্রীড়া উৎসব

আহাদ চৌধুরী বাবু : বাংলাদেশ ক্রীড়া পরিষদ, ইউকের উদ্যোগে দ্বিতীয়বারের মত বার্মিংহামে ক্রীড়া উৎসব হতে যাচ্ছে।আগামি ১৪ আগস্ট, রোববার স্মলহীথ লেইজার সেন্টারে দিনব্যাপি এই উৎসব চলবে।মঙ্গলবার বিকেলে লন্ডনে এক সংবাদ সম্মেলনে এই তথ্য জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে জানানো হয়, “বিলেতে বাংলাদেশীদের ধারাাবহিক অবস্থান এখন তৃতীয়-চতুর্থ প্রজন্ম পর্যন্ত। শিকড়ের প্রতি টান, দেশ মাতৃকার প্রতি ভালবাসা অন্যান্য অনেক জাতি-গোষ্টি থেকে বাংলাদেশী বংশোদ্ভূতরা অনন্য। হাজার বছরের বাঙালীর ইতিহাস ঐতিহ্য সাংস্কৃতিক কর্মকান্ড-তৎপরতা প্রজন্ম থেকে প্রজন্ম পর্যন্তপৌঁছে দিতে বিলেতের প্রবাসীরা সেই সূচনাকাল থেকেই ছিলেন তৎপর, সচেতন ও সজাগ। আমরা সেই ধরাবাহিকতা রক্ষায়ই পুরানো দিনের খেলাধুলা ও সাংস্কৃতিক কর্মকা- নিয়ে আগামী ১৪ আগস্ট ২০১৭ বার্মিংহামে দিনব্যাপী ক্রীড়া উৎসব আয়োজন করেছি। এটি আমাদের দ্বিতীয় আয়োজন। উৎসবটি উদ্বোধন করবেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের বার্মিংহামস্থ মাননীয় সহকারী হাইকমিশনার মোহাম্মদ জুলকার নায়েন।”

” উৎসবের মূল উদ্দেশ্য বাংলাদেশের ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডের বিলুপ্ত ও বিলুপ্ত-প্রায় ঐতিহ্যের অনেক খেলাধুলা ও সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডের পুনঃ প্রচলন ও সেসবের প্রতি আগ্রহ জাগরণ।
যে কোনো বয়সের যে কেউ নিজেদের পছন্দমত এক বা একাধিক খেলায় অংশ গ্রহণ করার সুযোগ রয়েছে।খেলাগুলোর মধ্যে রয়েছে: কাবাডি, কানামাছি, মোরগের লড়াই, বিস্কুট দৌড়, সুই-সুতা দৌড়, হাড়ি ভাঙ্গা, চেয়ার দৌড়, দৌড়, বালিশ দৌড়, মার্বেল দৌড়, ফুটবল, ব্যাডমিন্টন, লুডু, দড়ি ফাল প্রভৃতি।সবগুলো খেলাতেই কোন ধরণের এন্ট্রি ফি ছাড়া অংশগ্রহণের সুযোগ রয়েছে।শুধুমাত্র ফুটবলে ত্রিশ পাউন্ড এবং ব্যাডমিন্টনে পঁচিশ পাউন্ড এন্ট্রি ফি রয়েছে।

বড় বড় সব শহরের প্রতিনিধিত্বের আগাম রেজিস্ট্রেশনও রয়েছে।দিনব্যাপী অর্থাৎ সকাল এগারোটা থেকে বিকাল পাঁচটা পর্যন্ত চলবে এ উৎসব।এতে নিজেদের পছন্দমত খেলাধূলায় অংশগ্রহণ ও দিনব্যাপী আনন্দ-উৎসবে-ফূর্তিতে মেতে উঠতে সকলের প্রতি আহ্বান জানানো হয়।দিনব্যাপী এ উৎসবটি বার্মিংহামের স্মল হীথস্থ স্মল হীথ লেজার সেন্টারে অনুষ্ঠিত হবে।

Britbangla24.com


এতে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন বাংলাদেশ ক্রীড়া পরিষদ ইউকের জেনারেল সেক্রেটারি সাহিদুর রহমান সুহেল।বক্তব্য রাখেন ক্রীড়া পরিষদ ইউকের উপদেষ্টা কমরেড মসুদ আহমদ, প্রেসিডেন্ট মুক্তিযুদ্ধামোহাম্মদ আব্দুল হামিদ, ভাইস প্রেসিডেন্ট আমিরুল ইসলাম বেলাল ও ‘বাংলা ভয়েস’ সম্পাদক প্রাবন্ধিক মোহাম্মদ মারুফ।
সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ ক্রীড়া পরিষদ ইউকের নেতৃবৃন্দ সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন।এক প্রশ্নের জবাবে সংগঠনের জেনারেল সেক্রেটারি বলেন, বাংলাদেশের এই ঐতিহ্যবাহী খেলাধূলা বৃটেনের মূলধারার কাছে তুলে ধরতেও তাঁদের বিভিন্ন প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।স্থানীয় বৃটিশ এমপিসহ মূলধারার বিশিষ্টজনের উপস্থিতি নিশ্চিত করতে তাঁরা নিরলসভাবে কাজ করছেন।অপর এক প্রশ্নের জবাবে, সংগঠনের সভাপতি মোহাম্মদ আব্দুল হামিদ বলেন, গতবারের সাফল্যের ধারাবাহিকতায়ই তাঁরা এ বছর আরো বড় পরিসরে এই উৎসব আয়োজন করছেন।ভবিষ্যতে লন্ডনসহ দেশের অন্যান্য শহরেও বার্ষিক ক্রীড়া উৎসব আয়োজনের কথা ভাবছেন।

 

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Advertisement